How-to-send-writings-to-Anandabazar-Patrika-at-Rabibasoriyo-section

“আমাদের ছোটোবেলায় এত মোবাইল ছিল না। হাতের সামনে টিভি ছিলনা। কিছুই সহজলভ্য ছিল না। পাড়ার কোনো ভট্টাচার্য বা চক্রবর্তী বাড়িতে মুরগির খাঁচার মত টিভি থাকতো। সেই টিভি দেখবার জন্য আমাদের উৎসাহ ছিল চোখে পরবার মত। পাড়ার সকলে বিকাল হলে সেখানে ভীড় করতো। এতো বড়ো বড়ো মানুষের ভীড়ে আমরা পুচকে ছেলে-মেয়েরা হারিয়ে যেতাম। তখন পাড়ার দু-একটা দোতালা বাড়িতে খবরের কাগজ আসতো। আমরা গোটা সপ্তাহ অপেক্ষা করে থাকতাম। শনিবার রাতে ঘুমোতাম না, কখনো চোখ লেগে গেলে রবিবারের গল্পের চরিত্ররা আমাদের তারা করে বেড়াতো। আমরা তিন বন্ধু ভোর ৫ টা থেকে দোতালা বাড়ির চারিপাশে চক্কর দিতাম। ঘড়িতে ৬ টা বাজতো। পেপারকাকু সাইকেলের বেল বাজিয়ে দোতালা বাড়ির সামনে থামতো।  তারপর একটা আনন্দবাজার গ্রিলে গুঁজে দিয়ে সাইকেল চালিয়ে রওনা দিত। তারপর, দু বন্ধুকে রাস্তার দুদিকে তাকিয়ে থাকতে বলে আস্তে করে পেপারটা থেকে রবিবাসরীয়র পেজটা নিয়ে পেপারটা যথাস্থানে রেখে তিনবন্ধু নিরুদ্দেশ হয়ে যেতাম।”

একটা গল্পের ছোট্ট একটা পার্ট বললাম, যাগগে গোটা গল্পটা অন্য কোনোদিন বলবো।

এবার আসি আনন্দবাজারের রবিবাসরীয়তে ছোটোগল্প পাঠাবেন কিকরে? ছোটোগল্প পাঠানোর জন্য আপনাকে কিছু নিয়ম মাথায় রাখতে হবে।

○ গল্পের শব্দসংখ্যা যেন ১৪০০ থেকে ১৬০০ এর মধ্যে হয়৷

○ পিডিএফ ফাইল পাঠাবেন না। ওয়ার্ডে টাইপ করে সরাসরি ওয়ার্ড ফাইল সেন্ড করবেন।

○ ছোটোগল্পটি আগে যেন কোথাও প্রকাশিত না হয়। বিঞ্জপ্তি মতে গল্পটি মৌলিক হতে হবে। যদি কেউ আগে প্রকাশিত কোনো গল্প সেন্ড করেন। এবং তারপর যদি সেটা তারা জানতে পারে তবে ভবিষ্যতে আর কখনো আপনার লেখা সেই পত্রিকায় প্রকাশিত হবে না। কোনো অনুবাদ লেখাও গ্রহনযোগ্য না।

○ পান্ডুলিপির সঙ্গে নিজের নাম ও ঠিকানা অবশ্যই দিতে হবে।

○ লেখা মনোনীত হতে সাত থেকে আট মাস সময় লাগতে পারে। মনোনীত হলে পত্রিকার পক্ষ থেকে আপনাকে জানানো হবে।

○ লেখা পাঠাতে হবে, [email protected] এই ইমেল আইডিতে। ইমেল আইডির সাবজেক্টএ আপনাকে অবশ্যই Rabibasariya কথাটি উল্লেখ করতে হবে।

(সূত্র- আনন্দ বাজার পত্রিকা)