৭৩ বছর আগে স্বাধীনতা লাভ করলেও ভারতেই এমন ৫টি জায়গা রয়েছে যেখানে ভারতীয়দের প্রবেশ সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। অনিচ্ছাকৃতভাবে এই জায়গায় প্রবেশ করলে বড় সমস্যায় সম্মুখীন হতে হয় ভারতীয়দের, এমনকি জেল ও জরিমানা পর্যন্ত হতে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক ভারতের এই পাঁচ জায়গা সম্পর্কে-

১) উনো-ইন হোটেল, বেঙ্গালুরু:-

 

20210522 214933


 

বেঙ্গালুরুতে এই হোটেলটি ২০১২ সালে জাপানিদের কর্পোরেটদের জন্য নির্মাণ করা হয়েছিল। কোন কারণবশত জাতিগত বৈষম্যের অভিযোগ ওঠায় ২০১৪ সাল থেকে ভারতীয়দের জন্য নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে হোটেলটি।

২) কাসোল গ্রাম, হিমাচল প্রদেশ:-

 

20210522 215039


 

বিগত ২০১৫ সাল থেকে এই গ্রামটিতে ভারতীয়দের প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর্মি ট্রেনিং নেওয়ার জন্য ইসরাইলী নারীরা ছুটি কাটাতে ও ভ্রমণ করতে এই গ্রামে আসেন। কয়েকজন ভারতীয় তাদেরকে উত্যক্ত করায়, এই গ্রামে ভারতীয়দের আসা বন্ধ করা হয়েছে।

৩) ফরেইনার্স অনলি বিচ, গোয়া:- 

 

 

20210522 215425


গোয়ার সমুদ্র সৈকতে কতগুলি রেস্তোরাঁ রয়েছে যেখানে বিদেশীরা খোলামেলাভাবে মেলামেশা করে বলে সেখানে ভারতীয়দের প্রবেশ সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

৪) রেড ললিপপ হস্টেল, চেন্নাই:- 

 

20210522 215205


 

চেন্নাইয়ের শহরে অবস্থিত এই হস্টেলে কেবল বিদেশি গ্রাহকদের প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হয় অর্থাৎ যাদের কাছে বিদেশের পাসপোর্ট আছে। ডেকান হেরাল্ড -র একটি গল্প অনুসারে  ‘নো ইন্ডিয়ান’ নীতি হোটেলটিতে বেশ কঠোরভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে যার ফলে কেবল বিদেশি পাসপোর্টের অধিকারী ভারতীয়রাই এখানে থাকতে পারবেন।

৫) ফরেইনার্স ওনলি বিচ, পুদুচেরি:- 

 

20210522 215301


 

গোয়ার মতোই পুদুচেরিতে কিছু সমুদ্র সৈকত এবং রেস্তোরাঁ আছে যেখানে কেবল বিদেশিরাই আসতে পারেন। সারাবছর বিদেশীরা এই সমস্ত সমুদ্র সৈকতে এসে ভীড় করার পাশাপাশি খোলামেলা ভাবে মেলামেশা করে বলে ভারতীয়দের সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে সেখানে।

এরকম আরো তথ্য পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটে, এবং যুক্ত হন আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে- WhatsApp