The cause of delaying for getting money of Swami Vivekananda scholarship.

রাজ্য সরকারের বিভিন্ন স্কলারশিপ গুলি যেমন, স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ, ওয়েসিস স্কলারশিপ, ঐক্যশ্রী স্কলারশিপ, কন্যাশ্রী স্কলারশিপ, নবান্ন স্কলারশিপ আরো প্রভৃতি স্কলারশিপে আবেদন করার দীর্ঘ আটমাস কেটে যাবার পরও বেশি সংখ্যক ছেলে মেয়ে টাকা পায়নি। কেন এই টাকা আটকে গিয়েছে তা নিয়ে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে রাজ্য মহল থেকে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ ফিলাপ করবার জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমান নাম্বার লাগে। যা প্রতিবছর একটা সংখ্যার মধ্যে আবদ্ধ থাকে এবং সরকার সেই সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীকে সেই বৃত্তি দিয়ে থাকে। কিন্তু গত বছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার শেষের কিছু বিষয়ে গড় নাম্বার দেবার  ফলে, একটা বিশাল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী এই নাম্বারের গন্ডি অতিক্রম করে গিয়েছে। যার ফলে স্কলারশিপের আন্ডারে জমা পড়েছে অতিরিক্ত সংখ্যক আবেদন পত্র। এর ফলে সরকার প্রতিবছর যে টাকা এই স্কলারশিপ এ খরচ করে থাকে এবছর তার চেয়েও অনেক বেশি সংখ্যক টাকা সেই স্কলারশিপে দিতে হচ্ছে।

সূত্রে খবর, এই ব্যাপারটি আনেক আগেই আন্দাজ করতে পেরেছিলেন বিকাশ ভবনের কর্মকর্তারা কিন্তু এতটা বেশি আবেদনপত্র জমা পরবে তেমনটাও তারা ধারনা করতে পারেনি। এরকমই যে সমস্ত সরকারি ভাতা বা স্কলারশিপ নাম্বারের ওপর ভিত্তি করে দেওয়া হয় সমস্তই এই একটা কারনে ধীর গতিতে চলছে। তবে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে সকলকে স্কলারশিপের টাকা দেওয়া হবে।

★ সরকারি – বেসরকারি যে কোনো চাকরির খবর সবার আগে পেতে; ★ সমস্ত স্কলারশিপের আপডেট সবার আগে পেতে; ★ বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের আপডেট সবার আগে পেতে; ★ ঘরে বসে নিজের ওয়েবসাইট বানিয়ে তার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে; ★ সমস্ত রকম প্রিমিয়াম অ্যাপ ফ্রীতে পেতে আজই যুক্ত হন আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে,

○হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লিঙ্কঃ- WhatsApp