চলতি মাসের ১৬ তারিখ থেকে চালু হতে চলেছে দুয়ারে সরকার প্রকল্পের ক্যাম্প। চলুন জেনে নেওয়া যাক এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আপনি কোন কোন প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। 


(১) খাদ্যসাথী- দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে যে সুবিধা গুলি পাওয়া যাবে তার মধ্যে অন্যতম হলো খাদ্যসাথী। এই কর্মসূচিতে খাদ্যসাথীর অন্তর্গত যে সমস্ত সুবিধা গুলি পাওয়া যাবে সেগুলি হল-

            (ক) পরিবারের কোন সদস্যের যদি এখনও পর্যন্ত রেশন কার্ড না হয় তবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে সেই সদস্য ৪ নং ফর্ম ফিলাপ করে জমা করলে রেশন কার্ড পেয়ে যাবেন। 

            (খ) এছাড়াও আপনার ডিজিটাল রেশন কার্ডে যদি কোন ভুল থাকে তবে সেই ভুল সংশোধনের সুবিধাও পাবেন এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে। এর জন্য আপনাকে ৫ নং ফর্ম ফিলাপ করে জমা দিতে হবে। 

            (গ) আপনি যদি রেশন দোকান পরিবর্তন করতে চান তবে এই ক্যাম্পে এসে ৬ নং ফর্ম ফিলাপ করে জমা করলেই আপনার রেশন দোকান পরিবর্তন হয়ে যাবে।

            (ঘ) এছাড়া আপনার আগে রেশন কার্ড যদি নষ্ট হয়ে গিয়ে থাকে বা হারিয়ে গিয়ে থাকে তবে আপনি ডুবলিকেট রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন এই ক্যাম্পে। এক্ষেত্রে ৯ নং ফর্ম ফিলাপ করে জমা দিতে হবে। 

           (ঙ) আপনি যদি রেশন কার্ড, আধার কার্ড, মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করতে চান তার জন্য ১১ নং ফর্ম ফিলাপ করে জমা দিতে হবে। আপনি চাইলে অনলাইনে রেশন কার্ড, আধার কার্ড লিঙ্ক করতে পারেন। 

(২) স্বাস্থ্যসাথী কার্ড- রাজ্যবাসীর জন্য করা রাজ্য সরকারের প্রকল্প গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হলো স্বাস্থ্যসাথী কার্ড। এই কার্ডটি থাকলে আপনি ফ্রিতে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা ও অপারেশনের সুযোগ পেয়ে যাবেন। রাজ্য সরকার প্রতিবছরে এই কার্ড ৫ লক্ষ টাকা দিয়ে থাকে ফ্রিতে চিকিৎসা করার জন্য। এই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর জন্য‌ও আপনারা আবেদন করতে পারবেন দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে। এই ক্যাম্পেই আপনারা পেয়ে যাবেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর আবেদন ফর্ম। এর জন্য আপনার যদি আধার কার্ড থাকে তবে সেই আধার কার্ড  সঙ্গে করে নিয়ে আসতে হবে এবং রেশন কার্ড নিয়ে যেতে হবে।


(৩) তপশিলী বন্ধু ও জয় জোহার পেনশন প্রকল্পে আবেদন- তপশিলি বন্ধু ও জয় জোহার পেনশন প্রকল্পে ৬০ বছর বয়স হলেই প্রতিমাসে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ১০০০ টাকা পেনশন দেওয়া হয়ে থাকবে । এই পেনশন প্রকল্পে আবেদনের জন্য আবেদন ফর্ম‌ও দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে পাওয়া যাবে এবং আবেদন করে সেখানে জমা করতে হবে। 


(৪) শিক্ষাশ্রী স্কলারশিপ- রাজ্য সরকার পঞ্চম শ্রেণী থেকে অষ্টম শ্রেণির জন্য নিয়ে এসেছে শিক্ষাশ্রী স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের আবেদনের ফর্ম‌ও পাওয়া যাবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে। এবং এই ফর্মটি সঠিকভাবে ফিলাপ করে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জমা করলে স্কলারশিপের নির্ধারিত টাকা পাওয়া যাবে। 


(৫) ঐক্যশ্রী স্কলারশিপ- পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পড়ুয়াদের জন্য রাজ্য সরকার এই প্রকল্পটি চালু করেছে এই প্রকল্পে ৩৩ হাজার টাকা পর্যন্ত পাওয়া যাবে। এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন এর ফর্মও পাওয়া যাবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে।


(৬) কন্যাশ্রী প্রকল্প- রাজ্য সরকারের সমস্ত প্রকল্পগুলির মধ্যে অন্যতম হলো কন্যাশ্রী প্রকল্প। এই প্রকল্পটি K1( অষ্টম শ্রেণী বা তার ঊর্ধ্বে, বয়স- ১৩ থেকে ১৮) ও K2 ( ১৮ থেকে ১৯) এই দুইভাগে বিভক্ত। K1 এ বাৎসরিক ১০০০ টাকা দেওয়া হয় এবং K2 তে এককালীন ২৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়। এই আবেদন করার জন্য মেয়েকে পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হতে হবে,  অবিবাহিত হতে হবে,সরকার স্বীকৃত যে কোন প্রতিষ্ঠানে পাঠরতা হতে হবে, নিজের নামে ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার থাকতে হবে এবং বয়স ১৩ থেকে ১৯-এর মধ্যে হতে হবে। এই প্রকল্পটির জন্য আবেদন করা যাবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে। 


(৭) রূপশ্রী প্রকল্প- মেয়েদের জন্য রাজ্য সরকারের আরেকটি অন্যতম প্রকল্প হল রূপশ্রী প্রকল্প। বিবাহ করতে ইচ্ছুক যেকোনো মেয়েরা এই প্রকল্পের আবেদন করতে পারবেন এবং এই আবেদন করলে এককালীন ২৫ হাজার টাকা তারা পাবেন। এই প্রকল্পের আবেদন ফর্মও দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে পাওয়া যাবে।


(৮) কৃষক বন্ধু প্রকল্প- দুয়ারের সরকার ক্যাম্পে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই প্রকল্পে ন্যূনতম ৪০০০ টাকা ও ১ একর জমি থাকলে ১০ হাজার টাকা করে বছরে দুই কিস্তিতে পাওয়া যাবে।


(৯) লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প- মহিলাদের জন্য রাজ্য সরকার আরেকটি নতুন প্রকল্প চালু করেছেন, যার নাম লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প। এই প্রকল্পে মহিলারা প্রতিমাসে ১০০০ টাকা(SC/ST) ও ৫০০ টাকা ( General/OBC) করে পাবেন। এই প্রকল্পের জন্যও দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আবেদন করা যাবে।


(১০) বৃদ্ধ/বয়স্ক ভাতা/বিধবা ভাতা/ প্রতিবন্ধী ভাতা- আপনারা এই পেনশনের জন্য ফর্ম‌ও পেয়ে যাবেন দুয়ারের সরকার ক্যাম্পে। সেই ফরমটি ফিলাপ করে জমা করলে প্রতি মাসে সরকারি একাউন্টে টাকা পেয়ে যাবেন।


(১১) জাতিগত শংসাপত্র আবেদন ( SC/ST/OBC certificate apply)- দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জাতিগত শংসাপত্র এর জন্য নতুন করে আবেদন করতে পারবেন।  এই আবেদনের জন্য আধার কার্ড, ভোটার কার্ড, রেশন কার্ড, মাধ্যমিকের মার্কশিট, ইনকাম সার্টিফিকেট, পাসপোর্ট সাইজের ফটো, জন্মের প্রমাণপত্র এবং বংশের কারো‌ও কাস্ট সার্টিফিকেট থাকলে সেটি সাথে নিয়ে আসতে হবে।


(১২) জব কার্ড আবেদন- এই দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জব কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন কিংবা ১০০ দিনের কাজ পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।


সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি চাকরির খবর সহ সমস্ত স্কলারশিপ ও সরকারি প্রকল্পের খবর সবার আগে পেতে আজই প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করুন আমাদের WB Job News অ্যাপ।


Download WB Job News Android App


   হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ লিঙ্ক ঃ- Whatsapp