Akankkha-sahitya-patrika

সেও এক বিকেল ছিলো,

তুমি এসে বসতে অপরাজিতার বাগানে,

দোলনায় দুলতে,

আমি জানতাম তুমি আসবে,

তাই নিজের স্বার্থকে উপেক্ষা করে,

আমার যতগুলো”উচিত” ছিলো,

তাদের চিতা জ্বালিয়ে দিয়ে,

আমি তোমার মধ্যে এক আশ্চর্য গোধূলিকে দেখতাম

আমি দেখতাম তুমি লিখতে শুধু,

মাঝেমধ্যে অবিন্যস্ত চুল তোমাকে বিরক্ত করতো,

শেষে বিরক্ত হয়ে,

আমার মতো শোকগ্রাহীদের,

হৃদয়গ্রন্থী ছিঁড়ে দিয়ে

তুমি চলে যেতে তারপর,সব লেখা ছিঁড়ে দিয়ে,

স্তব্ধ হত চরাচর।

তুমি বোঝোনি কোনোদিন,

সেই সব শব্দ থেকে গড়ে উঠেছে কাল,

গড়ে উঠেছে নতুন সভ্যতা,

তোমার প্রচন্ড পুরনো পদক্ষেপেও,

কত জীবন্ত হয়ে আছে আমার চুম্বন।

তুমি জানো না,তুমি চলে গেছো,

তাও তোমার প্রতিটি বিকেল,

কতটা বাহুপাশে লেপ্টে আছে আমার।।

বিনা অবয়বে,বিনা শর্তে,বিনা চাহিদায়৷