Apply-to-Jai-Johar-and-Tapasili-Bandhu-Prakalpa

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পগুলির মধ্যে রয়েছে জয় জোহার প্রকল্প এবং তপশিলি বন্ধু প্রকল্প। এই দুটি প্রকল্পই জয়বাংলা পেনশন প্রকল্পের আওতায় পড়ে।

জয় জোহারতফসিলি বন্ধু প্রকল্পের জন্য কিভাবে আবেদন করতে হবে এবং ফর্ম ফিলাপ করার পর কোথায় জমা দিতে হবে, আবেদন করতে কি কি ডকুমেন্টস লাগবে, কারা কারা আবেদন করতে পারবে, এ সমস্ত বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

• জয় জোহার ও তফসিলি বন্ধু প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করতে হবে?

এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য জয় বাংলা পেনশন স্কিম এর অ্যাপ্লিকেশন ফর্মটি ফিলাপ করতে হবে। এই ফর্মে ডান দিকে উপরে একটি সেল্ফ অ্যাটেস্টেড একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি অ্যাটাচ করে দিতে হবে। এরপর যে প্রকল্পের জন্য আবেদন করা হচ্ছে সেই প্রকল্পের(তপশিলি বন্ধু/ জয় জোহার) ঘরে টিক দিতে হবে।

এরপর আবেদনকারীর পার্সোনাল ডিটেলস পূরণ করতে হবে। আবেদনকারীর নাম, লিঙ্গ, জন্ম তারিখ, বয়স, আবেদনকারীর বাবার নাম, মায়ের নাম, কাস্ট, ম্যারিটাল স্ট্যাটাস, স্বামী/ স্ত্রীর নাম, মাসিক ইনকাম, ডিজিটাল রেশন কার্ড নাম্বার, AHL TIN নম্বর, আধার কার্ড নাম্বার, ভোটার কার্ড নাম্বার, প্যান কার্ড নাম্বার, বিপিএল কার্ড নাম্বার (যদি থাকে) এসব তথ্য পূরণ করতে হবে।

এরপর কন্টাক্ট ডিটেইলস এর জায়গায় রাজ্যের নাম ফর্মে দেওয়া থাকবে ওয়েস্ট বেঙ্গল, এরপর বিধানসভার নাম, পুলিশ স্টেশন, ব্লক, মিউনিসিপ্যালিটি, জিপি/ওয়ার্ড নাম্বার, ভিলেজ/ টাউন/ সিটি, হাউস নাম্বার, পোস্ট অফিস, পিন কোড ইত্যাদি উল্লেখ করতে হবে।

এরপর পশ্চিমবঙ্গে আবেদনকারী কত বছর ধরে বসবাস করছে তা লিখতে হবে, এছাড়াও মোবাইল নাম্বার ও ইমেইল আইডি দিয়ে পূরণ করতে হবে।

এরপর ব্যাঙ্ক ডিটেলস পূরণ করতে হবে। ব্যাংকের নাম, ব্যাংকের ব্রাঞ্চ এর নাম, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নাম্বার, IFSC কোড পূরণ করতে হবে।

• আবেদনপত্রের সঙ্গে কি কি প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস জমা দিতে হবে?
(১) পাসপোর্ট সাইজের ছবি,
(২) ডিজিটাল রেশন কার্ডের ফটোকপি,
(৩) ভোটার কার্ডের ফটোকপি,
(৪) ব্যাংকের পাসবইয়ের প্রথম পাতার ফটোকপি,
(৫) রেসিডেন্সিয়াল প্রুফ,
(৬) কাস্ট সার্টিফিকেট।

• আবেদনপত্রটি কোথায় জমা করতে হবে?
সঠিকভাবে পূরণ করে আবেদনপত্রটির দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জমা করতে হবে।

• কারা কারা এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবে?

(১) আদিবাসী(ST) শ্রেণীর মানুষেরা জয় জোহার প্রকল্পে এবং তপশিলি(SC) উপজাতির মানুষেরা তপশিলি বন্ধু প্রকল্পে আবেদন করতে পারবে।
(২) আবেদনকারীর বয়স ৬০ বছরের উর্ধ্বে হতে হবে।
(৩) আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
(৪) আবেদনকারী অন্য কোন সরকারি ভাতা প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন না।
(৫) আবেদনকারীর নিজের নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।

জয় বাংলা পেনশন প্রকল্পের আবেদনপত্র- Link

খবরটি ছড়িয়ে দিন সকলের মধ্যে। এরকমই আরও সমস্ত খবর সবার আগে পেতে ডানদিকের নীচে থাকা টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হন।