How-to-apply-for-Bank-BC-online

আপনি যদি সাইবার ক্যাফের সঙ্গে যুক্ত থাকেন তবে আপনার মাথায় একবার হলেও ব্যাঙ্ক বিসি নেবার কথা এসেছে। আপনি যদি কোনো ব্যাঙ্কের ব্যাঙ্ক বিসি নেন তবে আপনি আপনার ক্যাফেতে সেই ব্যাঙ্কের যাবতীয় কাজ করতে পারবেন। আপনারা হয়তো সচরাচর শহরের অলিতে গলিতে বিভিন্ন ছোটো ছোটো ব্যাঙ্ক দেখতে পান সেগুলো আসলে ব্যাঙ্ক বিসির আওতায় পরে। আজ আমরা আলোচনা করবো কিকরে যেকোনো ব্যাঙ্কের ব্যাঙ্ক বিসির জন্য আবেদন করবেন। How to apply for Bank BC online

১. ব্যাঙ্ক বিসি দুভাবে নেওয়া সম্ভব, প্রথম আপনার যদি CSC আইডি থাকে তবে আপনি অনলাইনে আবেদন করে CSC এর আন্ডারে থাকা ব্যাঙ্ক গুলির ব্যাঙ্ক বিসি নিতে পারবেন।

২. আমরা আজ প্রথমে আলোচনা করবো যাদের CSC আইডি রয়েছে তারা কিকরে ব্যাঙ্ক বিসির জন্য আবেদন করবেন৷ এবং পোষ্টের শেষে আলোচনা করবো যাদের CSC নেই তারা কিকরে ব্যাঙ্ক বিসির জন্য আবেদন করবেন।

৩. ব্যাঙ্ক বিসিতে আবেদন করবার জন্য গুগলে গিয়ে টাইপ করতে হবে Bank BC এবং প্রথম লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন যেটিতে লিখা থাকবে CSC Banking (http://bankmitra.csccloud.in)

৪. মেইন সাইটে ঢুকলেই আপনার সামনে একটি পপাপ খুলবে যেটিতে লিখা থাকবে Are you interested for Banking services আপনি Yes এ ক্লিক করুন।

. Yes এ ক্লিক করবার পর আপনাকে CSC পোর্টালে নিয়ে যাবে, সেখানে আপনার ইমেল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনার অ্যাকাউন্টটি লগিন করে নিতে হবে।

৬. এরপর আপনাকে Bank BC এর মেইন সাইটে এসে VLE registration এর অপশনটিতে গিয়ে registration করে নেবেন।

৭. এরপর আপনাকে সেই ব্যাঙ্কের জন্য একটি অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ফিলাপ করতে এবং এবং কিছু ডকুমেন্টস জমা দিতে হবে। ডকুমেন্টসের মধ্যে থাকবে আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ক্যানসেল চেক, দোকানের বাইরে থেকে ও ভেতর থেকে ছবি, ইলেকট্রিক বিল সহ আরো বিভিন্ন কিছু। সমস্ত কিছু সেখানে উল্লেখ করা থাকবে আপনারা ভালো করে পড়ে আবেদন করবেন।

৮. ফর্ম ফিলাপ করার পর আপনার ফর্মটি চলে যাবে আপনার ডিস্ট্রিক্ট ম্যানেজারের কাছে, তিনি ফর্মটিকে যাচাই করবেন এবং তারপর অ্যাপ্রুভ করবেন। এবং সেই আবেদন টি CSC এ কাছে পাঠিয়ে দেবে।

৯. এরপর আপনাকে একটি কারেন্ট অ্যাকাউন্ট ওপেন করতে হবে সেই ব্যাঙ্কে যে ব্যাঙ্কের জন্য আপনি BC এপ্লাই করবেন। এবং তারপর অনলাইনের সমস্ত ফর্ম ও যাবতীয় ডকুমেন্টস নিয়ে আপনাকে সেই বাঞ্চে E-Kyc করাতে হবে।

১০. এরপর ১৫ দিনের মধ্যে আপনার ব্যাঙ্ক বিসির পোর্টালটি ওপেন হয়ে যাবে এবং সেই পোর্টালে আপনি আইডি ও পাসওয়ার্ড জেনারেট করে কাজ করতে পারবেন।

যাদের CSC আইডি নেই তারা সরাসরি ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করে অর্থাৎ ব্যাঙ্কের আন্ডারে যেসব এজেন্সি থাকে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ব্যাঙ্কের CSC নিতে পারবেন।

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট:- Link

এরকমই আরও খবর সবার আগে পেতে ডানদিকের নীচে থাকা টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হন।