Port-your-sim-and-get-free-plan

আপনি যে সিমটি ব্যবহার করছেন সেটি নির্দিষ্ট একটি টেলিকম কোম্পানির সিম, হতে পারে সেটি Jio এর সিম; বা Airtel এর সিম; বা Vi এর সিম অথবা BSNL এর সিম। কিন্তু আপনি কি এটা জানেন আপনি যদি আপনার সিমের কোম্পানি পরিবর্তন করেন তবে আপনি এক মাস থেকে দু’মাসের প্ল্যানটি ফ্রীতে পাবেন। Port your sim and get free plan

পোর্ট কি? পোর্ট সাধারনত মোবাইলের নাম্বার অপরিবর্তিত রেখে মোবাইলের কোম্পানি চেঞ্জ করা। ধরে নিলাম আপনি একটি জিওর সিম ব্যবহার করেন কিন্তু জিওর সার্ভিস খারাপের জন্য আপনি এয়ারটেলে যেতে চান, কারন এয়ারটেলের নেট স্পিড জিওর তুলনায় ভালো। সেই সময় এই পদ্ধতি ব্যবহার করে আপনার ওই নাম্বারটিকে আপনি জিও কোম্পানির কাছ থেকে এয়ারটেল কোম্পানিতে খুব সহজে নিয়ে যেতে পারেন এটাই পোর্ট।

পোর্ট কখন করা সম্ভব:- স্বাভাবিক ভাবে একটি সিম ৯০ দিন অর্থাৎ তিনমাস পুরোনো হয়ে গেলেই আপনি পোর্ট করতে পারবেন।

বর্তমান পোর্টের অফার গুলো কি কি:-
বর্তমানে পোর্টে সবচেয়ে বড়ো অফার চলছে BSNL এ। আপনি যদি Jio-Airtel বা Vi থেকে BSNL এ আসেন তবে আপনি পেয়ে যাবেন ৫৬ দিন রোজ ২ জিবি করে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা ১০০ টি করে এস‌এম‌এস এবং আনলিমিটেড ভয়েসের সুবিধা।
যে কোনো সিম BSNL এ পোর্ট করতে আপনার খরচ হবে ১৫০ টাকার আশেপাশে।

এবং আপনি যদি Jio-Airtel বা Vi সিম ব্যবহার করেন এবং আপনার সিমটিকে BSNL বাদ দিয়ে যে কোনো সিমে পোর্ট করতে চান তবে আপনি আফার হিসেবে পাবেন ২৮ দিন ১.৫ জিবি করে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা, তার সঙ্গে ২৮ দিন আনলিমিটেড কলিং এবং রোজ ১০০ টি করে এস‌এম‌এসের সুবিধা।
এই কোম্পানিগুলি কে পোর্ট করতে আপনার খরচ হবে ৫০ টাকার আশেপাশে।

আপনি কোথা থেকে পোর্ট করাবেন?
আপনার পাড়ায় যে দোকানগুলিতে সিম রিচার্জ করা হয়ে থাকে তারাই সাধারণত এই কাজটি করে থাকে। অন্যথায় আপনি আরো ভালো পরিষেবা পেতে যে সিমে পোর্ট করাতে চান সেই সিমের সেন্টারেও যেতে পারেন।

সিম পোর্ট করার পদ্ধতিটি কেমন:- সবার প্রথমে আপনার যে সিম টি পোর্ট করা হবে সেই সিমে SMS পাঠানোর ব্যালেন্স থাকতে হবে। সেই সিম থেকে একটি SMS পাঠানো হবে কোম্পানিকে ১৯০০ নাম্বারে। SMS টি হবে এরকম PORT********** (*) এর জাগায় আপনার মোবাইল নাম্বার। এটা পাঠালেই সেখান থেকে আপনাকে একটি মেসেস পাঠানো হবে সেটি এবং আপনার আধার কার্ড নিয়ে যার কাছে পোর্ট করাবেন তার কাছে চলে যান সে পুরো ব্যপারটি করে দেবে। এবং ৩ থেকে ৪ দিন পর আপনার বর্তমান সিমটি কাজ করা বন্ধ করে দেবে। তখন আপনাকে নতুন সিমটি যে পোর্ট করার পর দোকান বা সেন্টার থেকে দেওয়া হবে সেটি মোবাইলে ইনপুট করে আধারকার্ড ভেরিফাই করে নিলেই, আদঘন্টার মধ্যে আপনার নতুন সিমটি চালু হয়ে যাবে। পোর্ট অফার দিতে বিভিন্ন দোকান বিভিন্ন রকম চার্জ করতে পারে।

এরকম আরও খবর সবার আগে পেতে ডানদিকের নীচে থাকা টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হন।