PM-Kisan-new-update-2022

ফিনিক্স বাংলায় সকলকে স্বাগত। আজ আমরা কথা বলবো পি.এম. কিষান যোজনা সম্পর্কিত নতুন আপডেট নিয়ে। ইতিমধ্যেই আপনারা জেনে গেছেন যে পি.এম. কিষান যোজনায় রেজিস্টার্ড সকল কৃষককে বাধ্যতামূলক ভাবে E-kyc করতেই হবে। এই E-kyc করার লাস্ট ডেট ঘোষণা করা হয়েছে ৩১ শে মার্চ, ২০২২।

কিন্তু এই E-kyc করতে গিয়ে নানানরকম সমস্যা দেখা দিচ্ছে। যার ফলে অনেক কৃষকই E-kyc করতে পারছে না। আজ আমরা কথা বলবো এই সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে। যাতে অতি সহজেই সকল কৃষক E-kyc করে নিতে পারে।

পি.এম. কিষান যোজনার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট pmkisan.gov.in এ অনেকসময়েই সার্ভার ডাউন থাকছে বা নানানরকম সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তো সেসব ক্ষেত্রে পেজটিকে কয়েকবার রিফ্রেশ করে নিলে পেজটি সঠিকভাবে খুলে যাবে।

• E-kyc করার তিনটি পদ্ধতি:-
(১) CSC এর মাধ্যমে E-kyc:- এই পদ্ধতিটি সকলেই করতে পারবে। যেসব কৃষকদের আধার কার্ডের সঙ্গে মোবাইল নাম্বার লিংক নেই তারাও এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ফিঙ্গার প্রিন্ট, চোখের রেটিনা এসবের মাধ্যমে E-kyc করা যাবে। এটি করার জন্য প্রথমে পি.এম. কিষান যোজনার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট pmkisan.gov.in এ গিয়ে থ্রি লাইনে ক্লিক করে CSC Login এ ক্লিক করতে হবে। এরপর একটি নতুন পেজ খুলে যাবে। অনেকের ক্ষেত্রে এই পেজটি খুলতে সমস্যা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে পেজটি কয়েকবর রিফ্রেশ মারলে সঠিকভাবে পেজটি ওপেন হয়ে যাবে। CSC ID দিয়ে লগ ইন করার পর Biometric Aadhar Authentication অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। তারপর কৃষকের আধার নাম্বারো ক্যাপচা কোড দিয়ে Search বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর পরবর্তী স্টেপগুলো খুলে যাবে। এভাবেই ফিঙ্গার প্রিন্ট এর সাহায্যে বা চোখের রেটিনার সাহায্যে E-kyc করে নেওয়া যাবে।

(২) পি.এম. কিষান যোজনার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে~ এই পদ্ধতিতে বাড়িতে বসেই E-kyc করে নেওয়া যাবে। এক্ষেত্রে আধার কার্ডের সঙ্গে মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক থাকা প্রয়োজন। প্রথমে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট pmkisan.gov.in এ এসে Farmers Corner অপশনটির নীচে E-kyc বলে যে বাটনটি রয়েছে তাতে ক্লিক করতে হবে। এরপরএকটি নতুন পেজ খুলবে যাতে কৃষকের আধার নাম্বার দিয়ে Search বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর Enter Aadhar Resistered Mobile No বলে একটি ঘর ওপেন হবে। সেটিতে মোবাইল নম্বর দিতে হবে। সেই মোবাইল নাম্বারে একটি OTP আসবে। সে ওটিপিটি সঠিকভাবে বসিয়ে Submit For Aadhar Authentication বাটনে ক্লিক করতে হবে। এই বাটনে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে E-kyc is Successfully Submitted বলে একটি লেখা আসবে। এভাবে E-kyc করা সাকসেসফুলি কমপ্লিট হয়ে যাবে।

(৩) PMKISAN GoI অ্যাপ থেকে:- এক্ষেত্রে প্রথমে গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে PMKISAN GoI অ্যাপটি ইনস্টল করে নিতে হবে। এই একটি ওপেন করার পর eKYC বলে একটি অপশন আসবে। এই অপশনে ক্লিক করে একদম আগের মতই অর্থাৎ অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে করার পদ্ধতির মতনই একই পদ্ধতি অবলম্বন করে E-kyc করে নেওয়া যাবে।

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট:- Link

সমস্ত খবর সবার আগে পেতে ডানদিকের নীচে থাকা টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হন।