e-Shram-Card-New-Update

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে দরিদ্র ও খেঁটে খাওয়া মানুষদের জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প চালু করা হয়েছে। এরকমই একটি প্রকল্প হলো ই-শ্রম কার্ড প্রকল্প। যারা যারা এই প্রকল্প আবেদন করেছে তারা প্রত্যেকে এখন থেকে পেয়ে যাবে মাসিক ১০০০ টাকা করে।

• ই-শ্রম কার্ড প্রকল্পটি কি?

কেন্দ্রীয় সরকার দেশজুড়ে দরিদ্র ও খেঁটে খাওয়া মানুষদের জন্য বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প চালু করেছে। মূলত দেশের অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের জন্য চালু করা হয়েছে এই প্রকল্প। অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের বেকারত্ব ও দারিদ্র্য সাথে লড়াই এর কথা ভেবে তাদের সংগ্রাম ও নিত্যদিনের সমস্যার সমাধানের জন্য সরকারের এই উদ্যোগ। এর মাধ্যমে অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মীরা সহজেই সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাবেন।

• ই-শ্রম কার্ড প্রকল্পটি থেকে কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে?

এই প্রকল্প থেকে অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকরা বিভিন্ন রকম সুবিধা পেয়ে যাবে। অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের পোর্টালে নিজের নাম নথিভুক্ত করলে সর্বোচ্চ ২ লক্ষ টাকার বীমা পেয়ে যাবেন। এর জন্য কোনো প্রিমিয়াম দিতে হবে না। এছাড়াও এই প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন রকম সামাজিক নিরাপত্তার সুবিধাও পাওয়া যাবে। স্ট্রিমকার থাকলে শ্রম বিভাগের সমস্ত স্কিম, যেমন- শিশুদের জন্য বৃত্তি, বিনামূল্যে সাইকেল, বিনামূল্যে সেলাই মেশিন, কাজের জন্য বিনামূল্যে সরঞ্জাম ইত্যাদি সুবিধা পাওয়া যাবে। এই ই-শ্রম কার্ডটি রেশন কার্ডের সঙ্গে লিঙ্ক করতে হবে। এতে পাওয়া যাবে সস্তায় রেশন। এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে, ই-শ্রম পোর্টালের মাধ্যমে সমস্ত গরিব খেঁটে-খাওয়া মানুষদের মাসিক ১০০০ টাকা করে দেওয়া হবে।

• এখনো পর্যন্ত প্রায় ৩৮ কটি শ্রমিকের পোর্টালের নাম নথিভুক্ত করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার এখনও পর্যন্ত প্রায় ২ কটি দরিদ্র ও খেঁটে খাওয়া মানুষদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাসিক ১০০০ টাকা পাঠিয়েছে। বাকিদেরও ধাপে ধাপে এই টাকা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে দিয়ে দেওয়া হবে। এই বছরের মে মাসের মধ্যে সমস্ত মানুষদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে এই টাকা।

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট:- Link

পোষ্টটি ভালোলাগলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করুন এবং এরকম আর‌ও তথ্য পেতে আজই যুক্ত হন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে