Open-SBI-account-in-Complete-Online-mode

আজকের এই ব্যস্ততার যুগে ব্যাংকে যেতে অনেকেরই অসুবিধা থাকতে পারে এবং তার মধ্যে স্টেট ব্যাংক হলে তো আরও সমস্যা। স্টেট ব্যাংক এমনিতেই ভারতের সর্ববৃহৎ ব্যাংক এবং স্টেট ব্যাংকের প্রতিটি শাখাতেই সচরাচর ভিড় লেগেই থাকে, সেইজন্য গ্রাহকদের অনেক অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়। সেইজন্যই SBI নিয়ে এসেছে অনলাইনের মাধ্যমেই জিরো ব্যালেন্স অ্যাকাউন্ট খোলার সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতি – এরজন্য ব্যাংকে গিয়ে KYC করার প্রয়োজন নেই, ভিডিও কলের মাধ্যমেই আপনার KYC সম্পূর্ণ করা যাবে।

• অনলাইনে SBI এ জিরো ব্যালেন্স অ্যাকাউন্ট খোলার পদ্ধতি –

১. প্রথমে প্লে স্টোরে গিয়ে Yono SBI:Banking & Lifestyle অ্যাপটি ইনস্টল করে নিন।

২. এরপরে পরপর এই অপশনগুলোতে ক্লিক করতে থাকবেন-
New to SBI -> Open Savings Account -> Without Branch Visit -> Insta Plus Savings Account -> Start a New Application -> Next

৩. এবার আপনার মোবাইল নম্বর (যেটি আপনি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সাথে লিংক করতে ইচ্ছুক) ও ইমেল আইডি (না দিলেও চলবে) টাইপ করুন এবং Sumbit অপশনে ক্লিক করুন।

৪. এবার আপনার মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি (OTP) যাবে, সেটি লিখে পুনরায় Sumbit এ ক্লিক করুন।

৫. এরপরে আপনাকে একটি অ্যাপ্লিকেশন পাসওয়ার্ড ক্রিয়েট করতে হবে। আপনার পাসওয়ার্ডটিতে নূন্যতম ৮ টি ক্যারেক্টার যার মধ্যে একটি স্পেশাল ক্যারেক্টার (যেমন – @) ও বাকি ক্যারেক্টার গুলোর মধ্যে বড়ো হাতের, ছোট হাতের অক্ষর ও নম্বরও থাকতে হবে। যেমন – [email protected] এরকম ধরনের (আরও কঠিন পাসওয়ার্ড রাখবেন তাহলে আরও সুরক্ষিত থাকবে আপনার অ্যাকাউন্ট ) পাসওয়ার্ডটিকে খাতায় লিখে রাখুন যাতে পরবর্তীকালে ভুলে না জান।

• এবার একটি সিকিউরিটি প্রশ্ন (Security Question) সিলেক্ট করে তার Answer লিখবেন এবং সেটিও মনে রাখবেন। (কোনো কারণে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে এই প্রশ্নটির উত্তর দিয়ে আবার নতুন পাসওয়ার্ড সেট করতে পারবেন)

৬. এরপরে DecelerationTerms & Conditions এ বক্সে ক্লিক করে টিক মার্ক দিয়ে Next এ ক্লিক করবেন।

৭. এবার Enter Adhaar Card অপশনে ক্লিক করে নিজের আধার নম্বর টাইপ করে Get OTP তে ক্লিক করে আপনার আধার কার্ডের সাথে লিংক করা মোবাইল নম্বরে পাঠানো ওটিপি লিখলে আধার কার্ড Validate হয়ে যাবে।

৮. আধার কার্ড থেকেই অটোমেটিক আপনার নাম, Gender, Date of Birth নিয়ে নিবে এবং Sumbit এ ক্লিক করবেন। আধার কার্ড থেকেই আপনার Address (ঠিকানা), পিন নম্বর নিয়ে নেওয়া হবে, আপনি State(রাজ্য), District (জেলা), Sub-district, Village/Town(গ্রাম/শহর) সিলেক্ট করে Next এ ক্লিক করবেন।

৯. এবার আপনার প্যান কার্ড নম্বরটি লিখে Next এ ক্লিক করবেন।

১০. আপনার আধার কার্ড থেকে অটোমেটিক আপনার ছবি নিয়ে নেওয়া হবে, এরপরে আপনার Educational Qualification (শিক্ষাগত যোগ্যতা), Martial Status (বিবাহিত / অবিবাহিত) দিয়ে তারপরে আরও তথ্য যেমন- আপনার City বা জন্মস্থান,আপনার বাবার নাম (Father’s Name), মায়ের নাম (Mother’s Name) টাইপ করবেন। উল্লেখ্য, বাবার টাইটেল (Title) Mr ও মায়ের টাইটেল (Title) Mrs সিলেক্ট করবেন।

১১. এবার আপনার বার্ষিক (Annual) ইনকাম, পেশা (Occupation), ধর্ম (Religion) সিলেক্ট করবেন।

১২. এরপরে আপনি নমিনী (Nominee) -এর নাম, তার সাথে কি সম্পর্ক (Relationship) এবং নমিনীর জন্মতারিখ, পরবর্তী পেজে তার Address (ঠিকানা) ও রাজ্য সিলেক্ট করে Next এ ক্লিক করবেন।

১৩. এবার Select Your Home Branch অপশনের নীচে আপনি যেই SBI ব্যাংকের শাখার অধীনে অ্যাকাউন্ট খুলতে চান তার নাম টাইপ করলেই ব্যাংকটি চলে আসবে। তা সিলেক্ট করে পরবর্তী পেজে Terms & conditions গুলো পড়ে I agree তে ক্লিক করে Next অপশনে গেলে আপনার মোবাইল নম্বরে পুনরায় OTP যাবে, তা দিয়ে Next এ ক্লিক করবেন।

১৪. আপনি Debit কার্ডে কোন নাম চান সেটি টাইপ করে Next এ গেলে আপনার জন্য একটি টোকেন নম্বর জেনারেট হয়ে যাবে যেটিকে খাতায় লিখে রাখবেন।

১৫. এবার Next এ গিয়ে পরবর্তী পেজে Start/Schedule a Video Call অপশনে ক্লিক করবেন। ভিডিও কলিং এ KYC এর জন্য আপনার অরিজিনাল প্যান কার্ড ও আধার কার্ড দেখাতে হবে (e-Pan বা e-Adhaar কার্ড দিয়ে ভিডিও KYC করা যাবে না )।

এইভাবেই আপনার সম্পূর্ণ আবেদন পদ্ধতি সম্পন্ন হবে।

এবার কিছুক্ষণের মধ্যেই আপনাকে মেসেজ করে আপনার অ্যাকাউন্ট নম্বর জানিয়ে দেওয়া হবে এবং আপনার জিরো ব্যালেন্স অ্যাকাউন্ট চালু হয়ে যাবে। আপনার আধার কার্ডে থাকা ঠিকানায় ATM কার্ড পাঠিয়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, এই অ্যাকাউন্টের সাথে কোনো পাসবুক দেওয়া হবে না কিন্তু আপনার পাসবুক খুব দরকার হলে ব্যাংকে গিয়ে তা কয়েক মিনিটেই বের করে নিতে পারেন।

• অ্যাপ লিঙ্ক:- Link

• অফিসিয়াল ওয়েবসাইট:- Link

পোষ্টটি ভালোলাগলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করুন এবং এরকম আর‌ও তথ্য পেতে আজই যুক্ত হন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে