New-Rules-for-West-Bengal-College-Admission-Process

পশ্চিমবঙ্গে কলেজে ভর্তির পদ্ধতির ক্ষেত্রে বড়ো পরিবর্তন আসতে চলেছে। এবিষয়ে গত ২রা জুন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু তাৎপর্যপূর্ণ ঘোষণা করেছেন (New Rules for West Bengal College Admission Process)। উল্লেখ্য, রাজ্যের বিভিন্ন কলেজে ভর্তির প্রক্রিয়া যথেষ্ট জটিল। প্রতিটি কলেজের জন্য ছাত্রছাত্রীদের আলাদা আলাদা ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করতে হতো। এরফলে অনেক পড়ুয়াই পছন্দমতো বহু কলেজে আবেদন করতে পারতো না। ফলে কলেজে আসন পাওয়া নিয়ে অনেক ছাত্রছাত্রীর মনে সংশয় তৈরী হতো। কিন্তু এবার থেকে আর এই পদ্ধতিতে ভর্তির আবেদন করতে হবে না। সম্পূর্ণ নতুন ও সহজসরল পদ্ধতিতে কলেজে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে হবে। কী সেই পদ্ধতি, কীভাবে আবেদন করবেন ইত্যাদি সমস্ত তথ্য নীচে বিশদে আলোচনা করা হলো —

• কী সেই নতুন প্রক্রিয়া?
(১) এবার উচ্চমাধ্যমিক উত্তীর্ণ পড়ুয়ারা সারা রাজ্যজুড়ে একটি পোর্টালের মাধ্যমেই একাধিক পছন্দমতো কলেজে আবেদন করতে পারবে।

(২) এই নতুন পোর্টালের দ্বারা কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইন ভর্তির প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা বিভিন্ন কলেজে স্নাতকস্তরে (B.A, B.Sc, B. Com ইত্যাদি) ভর্তি হতে পারবে।

(৩) সমস্ত ইউনিভার্সিটির অধীনে থাকা যেকোনো কলেজেই আবেদন করতে পারবে। অর্থাৎ একই ইউনিভার্সিটির অধীনে থাকা একাধিক কলেজে admission এর জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

• আরও পড়ুন:- ছোট বাচ্চাদের জন্য সহজেই আধার কার্ড বানান এই পদ্ধতিতে

(৪) নতুন এই Admission পোর্টালে গিয়ে পড়ুয়ারা নিজেদের ব্যক্তিগত তথ্য ও পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর একবার ফিল আপ করেই সব কলেজে আবেদন করতে পারবেন।

(৫) এই পোর্টালটি পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ শিক্ষা সংসদের অধীনে থাকবে এবং সম্পূর্ণ মেধার ভিত্তিতেই পড়ুয়ারা নিজেদের বাছাই করা কলেজগুলোতে ভর্তি হতে পারবেন।

(৬) শুধুমাত্র স্নাতক (UG) কোর্সগুলোতে ভর্তির জন্য এই পোর্টালে আবেদন করা যাবে। স্নাতকোত্তর (PG) স্তরে ভর্তির প্রক্রিয়া সম্পর্কে নতুন কোনোরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

(৭) এই নতুন সফটওয়্যার পোর্টাল বানানো হলে শীঘ্রই তা সরকারের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

মূলত এর আগে কলেজে ভর্তির প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে একাধিক ত্রুটি , মেধা তালিকায় গড়মিল ইত্যাদি অভিযোগ পাওয়া যেতো। এবার যাতে সেইসবের পুনরাবৃত্তি না হয় এবং স্নাতকস্তরে কলেজে ভর্তির ক্ষেত্রে যাতে স্বচ্ছতা বজায় থাকে সেইজন্যই এই কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনের প্রক্রিয়াকে রাজ্যের তরফে মান্যতা দেওয়া হয়েছে। আজ শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্যের প্রায় সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সাথে এই বিষয়ে একটি মিটিং ছিল এবং প্রত্যেকেই কেউ Virtually, কেউ আবার বৈঠকে উপস্থিত থেকে নিজেদের মতামত জানিয়েছে। সূত্রের খবর, অধিকাংশ উপাচার্যরাই এই ভর্তি প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে সবুজ সংকেত দিয়েছেন। শিক্ষামন্ত্রী আরও জানিয়েছেন যে মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যেই এই প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে সম্মতি দিয়েছেন। তাই এবছর থেকেই একটি পোর্টালের মাধ্যমে রাজ্যের সমস্ত কলেজগুলোতে স্নাতকস্তরে ভর্তির জন্য কেন্দ্রীয়ভাবে অনলাইনে এই ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হতে চলেছে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে