Set-Up-SBI-ATM-Machine-in-Your-Place

আপনি কী ভালো উপার্জনের পথ খুঁজছেন? তাহলে এই খবরটি আপনার জন্য। এবার থেকে বাড়িতে বসেই প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এই সম্পর্কিত একটি হোম বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে আজকের এই প্রতিবেদনে আলোচনা করা হলো।

আপনি নিশ্চয় দেখেছেন, অনেকেই নিজের জায়গাতে ATM মেশিন বসিয়েছেন। কিন্ত কীভাবে উনারা এই মেশিন বসিয়েছেন, কী কী লাগবে। আপনি ATM বসাতে পারবেন কিনা সেই বিষয়ে কোনো ধারণাই নেই! তাহলে আর চিন্তা করবেন না। আপনিও নিজের জায়গায় SBI সহ বিভিন্ন ব্যাংকের ATM মেশিন বসাতে পারবেন। কীভাবে ATM মেশিন বসিয়ে প্রতি মাসে মোটা টাকা উপার্জন করতে পারবেন তা নিয়ে নীচে বিশদে আলোচনা করা হলো।

• কী কী লাগবে নিজের জায়গায় ATM মেশিন বসানোর জন্য?
(১) ৫০ থেকে ৮০ বর্গফুট জায়গা থাকতে হবে।

(২) এটিএম বসানোর জন্য জায়গা নীচের তলায় হতে হবে। দোতালা বা তিনতলায় সেই জায়গা থাকলে হবে না।

(৩) উক্ত জায়গাটিতে যেনো লোকজন ভালোভাবে যাতায়াত করতে পারেন।

(৪) এটিএম বসানোর জায়গাতে ২৪ ঘন্টা বিদ্যুৎ পরিষেবা দেওয়ার কাজ আপনার নিজের খরচে করতে হবে।

(৫) যেখানে ATM মেশিন বসাতে চান সেখানে উপরে কংক্রিটের ছাদ থাকতে হবে।

• আবেদন করতে কী কী লাগবে?
(১) যেই জায়গাতে বসাবেন সেখানের জমির ডকুমেন্টস

(২) সচিত্র প্রমাণপত্র – আধার কার্ড,প্যান কার্ড, ভোটার কার্ড ইত্যাদি

(৩) ঠিকানার প্রমাণপত্র – ইলেকট্রিসিটি বিল, রেশন কার্ড ইত্যাদি)

(৪) ফটো, ইমেল আইডি, ফোন নম্বর

• কীভাবে ATM মেশিন বসানোর জন্য আবেদন করবেন?
মনে রাখবেন ATM মেশিন বসানোর জন্য ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করার বেশি প্রয়োজন নেই। ব্যাংক নিজে থেকে কোনো জায়গায় ATM মেশিন বসায় না। ব্যাংক বিভিন্ন কোম্পানির মাধ্যমে নিজেদের ATM মেশিন বসায়। এইরকমই জনপ্রিয় কোম্পানিগুলো হলো Tata Indicash ATM , India 1 Cash, Muthoot ATM ; আপনি সরাসরি এই কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটগুলোতে গিয়ে নিজের জায়গায় এটিএম বসানোর জন্য আবেদন করতে পারেন। আবেদন সম্পন্ন হলে সেই কোম্পানির আধিকারিকরা আপনার জায়গাটি খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেবে যে সেখানে ATM বসানো হবে কিনা। যদি উক্ত ATM কোম্পানি সেই জায়গাতে এটিএম মেশিন বসাতে ইচ্ছুক হয় তাহলে আপনার সাথে পুনরায় তারা যোগাযোগ করে নেবে।

• কীভাবে ATM মেশিন বসিয়ে উপার্জন করবেন?
(১) ATM মেশিন বসানোর জন্য আপনাকে সেই কোম্পানির তরফ থেকে প্রতি মাসে নির্দিষ্ট ভাড়া হিসেবে মিনিমাম ১৫,০০০ থেকে ২০,০০০ টাকা অবধি দেওয়া হবে। যদি ATM মেশিন বসানোর জায়গাটি খুব জনবহুল এলাকায় হয় ও সেখানে জমির দাম বেশি হয় তাহলে আপনাকে ৩০,০০০ থেকে ৫০,০০০ টাকা অবধিও ভাড়া দিতে পারে।

(২) এছাড়াও আপনাকে প্রতি মাসে কমিশন দেওয়া হবে। অর্থাৎ দিনে একটি ক্যাশ উইথড্রয়াল ট্রানজাকশানের জন্য ৮ টাকা করে ও একটি নন-ক্যাশ উইথড্রয়াল ট্রানজাকশান (যেমন নিজের অ্যাকাউন্ট ডিটেইলস চেক, ব্যালান্স চেক ইত্যাদি) এর জন্য আপনাকে ২ টাকা করে দেওয়া হবে। ধরা যাক, একদিনে আপনার ATM এ ১০০ টি ক্যাশ ট্রানজাকশান হলো তাহলে ৮০০ টাকা উপার্জন করতে পারলেন। এভাবে ধরলে প্রতি মাসে আরও ২৪,০০০ থেকে ৩০,০০০ টাকা অবধি পাবেন।

এইরকম আরও ভালো বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আজই জয়েন হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে