6-lakh-Aadhaar-cards-have-been-cancelled-Find-out-if-your-name-is-not-in-the-list

বর্তমানে ভারতীয় নাগরিকদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সচিত্র প্রমাণ পত্রের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো আধার কার্ড। সরকারি হোক বা বেসরকারি যেকোনো দপ্তরেই বিভিন্ন কাজের ক্ষেত্রে আধার কার্ড যথেষ্ট প্রয়োজনীয়। কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদীর সরকার একাধিপত্য স্থাপনের পরেই ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে আধার কার্ড নিয়ে যথেষ্ট কড়া মনোভাব গ্রহণ করা হয়েছিলো। আধার কার্ডকে ভারতের নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র হিসেবে তুলে ধরা থেকে শুরু করে ব্যাংক পরিষেবা হোক কিংবা বাড়িতে গ্যাস কানেকশন সমস্ত ক্ষেত্রে আধার কার্ডকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নথি হিসেবে গ্রহণ করা পর্যন্ত সমস্তটাই মোদী সরকারের কীর্তির অন্যতম উদাহরণ (Aadhaar Card Update)।

তবে আধার কার্ড যেমন ভারতের সাধারণ মানুষের জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হয়ে উঠেছে, তেমনভাবে কিছু অসাধু মানুষ তাদের উদ্দেশ্য সাধনের জন্য ভুঁয়ো আধার কার্ডও প্রচলন করা শুরু করেছে। যদিও প্রথম থেকেই এই নকল আধার কার্ডগুলিকে নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে ভারতের কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তবে এবারে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে যথেষ্ট কড়া পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুসারে জানা গিয়েছে যে, ভারতীয় কেন্দ্র সরকারের তরফে প্রায় ৬ লক্ষ নকল আধার কার্ড বাতিল করা হয়েছে। আপনি কি জানেন এই ৬ লক্ষ আধার কার্ডের মধ্যে আপনার আধার কার্ড রয়েছে কিনা? যদি না জেনে থাকেন তবে এই খবরটি আপনার জন্য।

১লা আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে রেশন তোলার নতুন নিয়ম, জেনে নিন এখনই

• চলুন তবে এই আধার বাতিল করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক:-
ডিজিটালাইজেশনেরপর থেকেই একদল অসাধু ব্যবসায়ী নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য ভুঁয়ো আধার কার্ড বানাচ্ছে। বিগত কয়েক বছরে ভারতের কেন্দ্রস্তরে এবং রাজ্যস্তরে এইরূপ ঘটনার নজির বারবার উঠে এসেছে। তবে এবারে এরূপ ভুঁয়ো আধার কার্ডগুলিকে শনাক্ত করতে যথেষ্ট তৎপর হয়ে উঠেছে ভারতের কেন্দ্র সরকারের ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া কিংবা UIDAI কর্তৃপক্ষ। বিগত ২০ শে জুলাই সংসদের কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর একটি বিবৃতিতে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, ভারতের কেন্দ্র সরকারের তরফে ৫,৯৮,৯৯৯ টি নকল আধার কার্ডকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি এধরনের জালিয়াতির রুখতে নেওয়া হয়েছে অনেকগুলি পদক্ষেপ এবং আধার কার্ডে যুক্ত করা হচ্ছে বাড়তি সুরক্ষা। কেন্দ্র সরকারের তরফে গৃহীত এই পদক্ষেপগুলি হল:-

১. এরূপ আধার কার্ড প্রস্তুতকারী প্রায় এক ডজন জাল ওয়েবসাইটকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে UIDAI এর পক্ষ থেকে।
২. অন্যদিকে নতুন আধার কার্ডগুলোতে যুক্ত করা হচ্ছে নতুন ধরনের ভেরিফিকেশনের পদ্ধতি। ইতিপূর্বে আধার ভেরিফিকেশনের জন্য আঙ্গুলের ছাপ ও চোখ স্ক্যান করা হতো। এবার থেকে এর পাশাপাশি ফেস প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে অর্থাৎ এবার থেকে আঙ্গুলের ছাপ এবং চোখের পাশাপাশি স্ক্যান করা হবে মুখও।
৩. এছাড়াও ফিঙ্গারপ্রিন্ট হোক কিংবা বায়োমেট্রিক সমস্ত ধরনের পদ্ধতিই রাখা হচ্ছে নতুন আধার কার্ডের জন্য।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে