Apply-to-GP-Birla-Scholarship-and-get-upto-50000-rupees-per-year

কিছুদিন পূর্বেই উচ্চমাধ্যমিকের রেজাল্ট প্রকাশিত হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন অঞ্চলের ছাত্রছাত্রীদের স্কুলছুটের প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়ায় ছাত্রছাত্রীদের পরিবারের আর্থিক অবস্থা। অনেক শিক্ষার্থীই শুধুমাত্র আর্থিক সংগতির অভাবে উচ্চশিক্ষা লাভ করতে পারেন না। আর তাই সমাজের পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করার উদ্দেশ্যে জি. পি. বিড়লা এডুকেশনাল ফাউন্ডেশন (G. P. Birla Educational Foundation) এর তরফে জি. পি. বিড়লা স্কলারশিপ (GP Birla Scholarship) প্রদান করা হয়ে থাকে। আজ আমরা আলোচনা করবো এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে আবশ্যিক যোগ্যতা কি কি, আবেদন পদ্ধতি ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি।

চলুন তবে দেখে নেওয়া যাক, এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে আবশ্যিক যোগ্যতা কি কি:-
১. এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে ছাত্রছাত্রীদের অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
২. যেসকল ছাত্রছাত্রীরা উচ্চমাধ্যমিকে WBCHSE বোর্ডে ৮৫ শতাংশ নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন অথবা ISC/CBSE বোর্ড থেকে ৯০ শতাংশ নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন এবং কলা (Arts), বিজ্ঞান (Science), ডাক্তারি (Medicine), ইঞ্জিনিয়ারিং (Engineering), আর্কিটেকচার (Architecture), আইন (Law), বাণিজ্য (Commerce), অথবা যেকোনো প্রফেশনাল কোর্সে স্নাতক স্তরে ভর্তি হয়েছেন তারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
৩. যেসকল ছাত্রছাত্রীর বাৎসরিক পারিবারিক আয় ৩,০০,০০০ এর চেয়ে কম তারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বাংলার শস্যবীমা প্রকল্পে আবেদন করুন, ফসল নষ্ট হলে ক্ষতিপূরণ পেয়ে যাবেন

• আর্থিক অনুদানের পরিমাণ:-
এই স্কলারশিপে আবেদনকারী শিক্ষার্থীরা তাদের কোর্সের ফি এবং হোস্টেল ফি বাবদ প্রতি বছরে ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত অনুদান পাবেন জি. পি. বিড়লা এডুকেশনাল ফাউন্ডেশনের তরফে। এছাড়াও কলেজের প্রথম বর্ষে শিক্ষার্থীদের ৭০০০ টাকা দেওয়া হবে বই কেনার জন্য। সর্বোচ্চ ৪ বছর পর্যন্ত এই অনুদান পেতে পারেন শিক্ষার্থীরা।

• আবেদন পদ্ধতি:-
এই স্কলারশিপের জন্য অনলাইন এবং অফলাইন দু’টি পদ্ধতিতেই আবেদন করা যাবে।

° অনলাইনে আবেদনের প্রক্রিয়া:-
১. প্রথমেই আপনাকে জি. পি. বিড়লা স্কলারশিপের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট https://www.gpbirlaedufoundation.com/ এ যেতে হবে।
২. এরপর application অপশনটিতে ক্লিক করুন।
৩. এরপর আপনার সামনে যে ওয়েব পেজটি আসবে তাতে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনের অংশে Please click here to apply অপশনে ক্লিক করুন।
৪. তারপর আপনার সামনে অনলাইনে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ফর্মটি আসবে। ফর্মটিতে আপনার নাম, ঠিকানা, বয়স, বৈধ ইমেল অ্যাড্রেস, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পিতামাতার বিভিন্ন তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
৫. এরপর প্রয়োজনীয় নথিগুলো নির্ভুলভাবে আপলোড করুন।
৬. সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করা হলে এবং সমস্ত নথি সঠিকভাবে আপলোড করা হলে সাবমিট অপশনে ক্লিক করলেই আপনার আবেদনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে।

° অফলাইনে আবেদনের পদ্ধতি:-
১. প্রথমেই আপনাকে জি. পি. বিড়লা স্কলারশিপের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট https://www.gpbirlaedufoundation.com/ এ যেতে হবে।
২. এরপর application অপশনটিতে ক্লিক করুন।
৩. এরপর আপনার সামনে যে ওয়েব পেজটি আসবে তাতে অফলাইন অ্যাপ্লিকেশনের অংশে Download অপশনে ক্লিক করুন।
৪. এই ফর্মটি ডাউনলোড করার পর সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
৫. এরপর ফর্মটির সাথে প্রয়োজনীয় নথি যুক্ত করে পোস্টের মাধ্যমে সঠিক ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

• আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা:-
GP Birla Educational Foundation
78, Syed Amir Ali Avenue
Kolkata – 700019 (Landmark. Calcutta Ice Skating Rink)

• আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-
১. আবেদনকারীর রঙিন ফটো
২. আবেদনকারীর পরিবারের বাৎসরিক আয়ের সার্টিফিকেট
৩. উচ্চমাধ্যমিকের মার্কশিট
৪. নতুন কোর্সে ভর্তির রশিদ

আবেদন করুন টাটা স্কলারশিপে এবং পেয়ে যান বাৎসরিক ৫০,০০০ টাকা

• নির্বাচন পদ্ধতি:-
ছাত্রছাত্রীদের আবেদনপত্রগুলি জি. পি. বিড়লা ট্রাস্টের মেম্বারদের তরফে বিচার করে দেখা হবে এবং নির্বাচিত ছাত্রছাত্রীদের ইন্টারিউয়ের জন্য ডাকা হবে। যেসকল ছাত্রছাত্রীরা ইন্টারভিউয়ে উত্তীর্ণ হবেন তারা এই স্কলারশিপের অনুদান পাবেন।

• আবেদনের শেষ তারিখ:-
এই স্কলারশিপে আবেদনের শেষ তারিখ ৩১শে আগস্ট ২০২২

এইরকম স্কলারশিপ সংক্রান্ত আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে