Apply-to-vivo-for-Education-Scholarship-and-get-10000-rupees-at-a-time

অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতের নাগরিকদের শিক্ষার হার যথেষ্ট কম। আর ভারতীয় নাগরিকরা বিশেষত অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে থাকা ছাত্রছাত্রীরা যাতে শিক্ষাক্ষেত্রে বিনা বাধায় এগিয়ে যেতে পারে এবং উচ্চশিক্ষা লাভ করতে পারে তার জন্য Vivo India Limited Company এর তরফে Vivo Scholarship প্রদান করা হয়। এটি একটি প্রাইভেট স্কলারশিপ। আজ আমরা আলোচনা করবো কিভাবে আপনারা এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন, কি পদ্ধতিতে আবেদন করবেন ইত্যাদি প্রয়োজনীয় তথ্যগুলি।

• ভিভো স্কলারশিপের আবেদনের ক্ষেত্রে আবশ্যিক যোগ্যতা কি কি:-
১. যেসকল ছাত্রছাত্রীরা সদ্য দশম, দ্বাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হয়েছে তারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
২. যেসকল ছাত্রছাত্রীরা নবম এবং একাদশ শ্রেণীর পরীক্ষায় ৮০ শতাংশ নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন, তারা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
৩. যেসকল ছাত্রছাত্রীরা সরকারি স্কলারশিপের অনুদান পেয়ে থাকেন তারাও এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন।
৪. এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে ছাত্রছাত্রীদের পরিবারের বার্ষিক আয় অবশ্যই ৪ লক্ষ টাকার কম হতে হবে।

পশ্চিমবঙ্গে শুরু হয়ে গেল অগ্নিপথ প্রকল্পের মাধ্যমে সেনাবাহিনীতে নিয়োগের আবেদন প্রক্রিয়া, সমস্ত খুঁটিনাটি জেনে নিন

• অনুদান:-
ভিভো স্কলারশিপে আবেদনকারী ছাত্রছাত্রীদের Vivo India Limited Company এর তরফে এককালীন ১০,০০০ টাকার বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে।

• আবেদন পদ্ধতি:-
১. প্রথমেই আপনাকে https://www.buddy4study.com/page/vivo-for-education-scholarship ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং Apply Now অপশনে ক্লিক করতে হবে।
২. এরপর আপনার ইমেইল আইডি/ মোবাইল নম্বর/ ফেসবুক আইডির মাধ্যমে রেজিষ্টার করতে হবে।
৩. এরপর আপনার সামনে যে ওয়েব পেজটি আসবে তাতে Start Application অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৪. এরপর আপনার সামনে অনলাইনে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ফর্মটি আসবে।
৫. ফর্মটিতে সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে।
৬. এরপর প্রয়োজনীয় নথিগুলো আপলোড করতে হবে।
৭. এরপর Terms and Conditions গুলি পড়ে নিয়ে Accept অপশনে ক্লিক করবেন এবং Preview অপশনে ক্লিক করে ফর্মটি সাবমিট করার আগে ফর্মটি আরেকবার দেখে নেবেন।
৮. সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করা হলে এবং সমস্ত নথি সঠিকভাবে আপলোড করা হলে সাবমিট অপশনে ক্লিক করলেই আপনার আবেদনটি সম্পূর্ণ হবে।

• আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-
১. আধার কার্ড
২. নবম অথবা একাদশ শ্রেণীর মার্কশিট
৩. বর্তমান কোর্সে ভর্তির রশিদ/ আইডি কার্ড
৪. পরিবারের বাৎসরিক আয়ের সার্টিফিকেট
৫. ব্যাংকের পাসবই এর প্রথম পৃষ্ঠার জেরক্স

জিও দিচ্ছে ২০০০ টাকার রিচার্জ একদম বিনামূল্যে, কিভাবে পাবেন জেনে নিন

• নির্বাচন পদ্ধতি:-
ছাত্রছাত্রীদের আবেদনপত্রগুলো তাদের নম্বর এবং পরিবারের বার্ষিক আয়ের নিরিখে বিচার করে ছাত্রছাত্রীদের একটি মেরিট লিস্ট তৈরি করা হবে Vivo India Limited Company এর তরফে। এরপর সেইসকল ছাত্রছাত্রীদের টেলিফোন মারফত ইন্টারভিউ নেওয়া হবে এবং যেসকল ছাত্রছাত্রীরা এই ইন্টারভিউয়ে উত্তীর্ণ হবেন তারা এই ভিভো স্কলারশিপের অনুদান পাবেন।

• আবেদনের শেষ তারিখ:-
ডিভোর্স স্কলারশিপের আবেদন কবে শুরু হবে বা কতোদিন পর্যন্ত চলবে তা নিয়ে এখনো পর্যন্ত Vivo India Limited Company এর তরফে অফিসিয়ালি কিছুই জানানো হয়নি। যদিও বিভিন্ন রিপোর্ট থেকে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই এই স্কলারশিপের আবেদন শুরু হতে চলেছে।

এইরকম স্কলারশিপ সংক্রান্ত আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে