Know-How-To-Cheek-If-Your-Aadhaar-Card-Is-Real-Or-Fake

আধার কার্ড বর্তমানে দেশের প্রায় সকল নাগরিকের কাছেই রয়েছে। এই কার্ড ভারতবর্ষের নাগরিকদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সচিত্র পরিচয়পত্র। এখনও অবধি প্রায় ১৩০ কোটি আধার কার্ড ইস্যু করা হয়েছে। কিন্তু এই বিপুল পরিমান আধার কার্ডের মধ্যেও বহু ভুঁয়ো কার্ড বানানো হয়েছে এবং তা শনাক্ত করতেই দেশের সরকার যথেষ্ট তৎপর। তাই আপনার আধার কার্ডটি খাঁটি না ভুঁয়ো তা আগেভাগে জেনে নেওয়াই শ্রেয়। আর আধার কার্ড যাচাই করার জন্য অত্যন্ত সহজ একটি অনলাইন পদ্ধতি রয়েছে, যার মাধ্যমে মাত্র ১ মিনিটেই নিজের আধার কার্ড সত্য না ভুঁয়ো তা জেনে নিতে পারবেন। তাহলে চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক এই সহজ পদ্ধতিটি সম্পর্কে।

• কীভাবে বুঝবেন আপনার আধার কার্ডটি খাঁটি না ভুঁয়ো?
(১) প্রথমে নিজের মোবাইলে বা পি.সি -তে UIDAI (ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া) এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://uidai.gov.in -এ যান।

(২) এবার Aadhaar Services অপশনের মধ্যে Verify an Aadhaar Number লিংকটিতে ক্লিক করুন।

(৩) তারপরে নিজের আধার নম্বর লিখবেন এবং নীচে দেওয়া ক্যাপচা কোডটি হুবহু টাইপ করে Procced And Verify Aadhaar অপশনে ক্লিক করবেন।

(৪) এরপর যদি গোল বৃত্তের মধ্যে টিক দেওয়া একটি ছবি দেখায় এবং নীচে লেখা থাকে Exists তাহলে বুঝবেন আপনার আধার কার্ডটি সত্য। আর তা না লেখা থাকলে বুঝবেন আপনার আধার কার্ডটি ভুঁয়ো।

নীচে Aadhaar Verification Completed এই কথাটিও লেখা থাকবে। পাশাপাশি আপনার বয়স, রাজ্য ও মোবাইল নম্বরের শেষ দুটো নম্বরও লেখা থাকবে। এইভাবেই আপনি যেই আধার নম্বরটি প্রথমে লিখেছিলেন সেটি অরিজিনাল না ভুঁয়ো তা সম্পর্কে একদম নিশ্চিত হতে পারবেন।

আজকের মধ্যে এই কাজটি না করলে আর পাবেন না পিএম কিষানের টাকা

দেশে বর্তমানে বহু অসাধু চক্র কাজ করছে যারা অনেক সাধারণ মানুষদের আধার কার্ড করে দেওয়ার বাহানায় ভুল বুঝিয়ে আধার কার্ডের মতোই একই রকম দেখতে বিভিন্ন কার্ড বানিয়ে দিয়ে মোটা টাকা ইনকাম করে নিচ্ছে। এরফলে বহু সাধারণ নাগরিক তাদের আধার কার্ডের অরিজিনালিটি সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারছিলেন না। মূলত তাদের জন্যই দেশের আধার কার্ড সংক্রান্ত দায়িত্বে থাকা সংস্থা UIDAI -এর তরফ থেকে উপরোক্ত নতুন পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। সম্প্রতি গত ২০ ই জুলাই,২০২২ তারিখে আধার কার্ড সংক্রান্ত একটি প্রশ্নের উত্তরে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, দেশে মোট ৫৯৮,৯৯৯ টি আধার কার্ড বাতিল করা হয়েছে।

আধার কার্ড নিয়ে যাতে কেউ জালিয়াতি না করতে পারে সেজন্য বাড়তি সুরক্ষা পদ্ধতি অবলম্বন করা হবে। যারা নতুন করে আধার কার্ডে নাম নথিভুক্তকরণ করবেন তাদের জন্য ফেস প্রযুক্তি ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করা হচ্ছে। আসলে প্রায়শই ভুঁয়ো আধার কার্ড নিয়ে নানা ধরনের অভিযোগ শোনা যায়। তা যাতে আটকানো সম্ভব হয় সেজন্যই সরকারের তরফ থেকে নিত্যনতুন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ খবর পেতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আজই জয়েন হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে