Start-business-at-small-investment-in-partnership-with-BATA-company-and-earn-huge-money

আপনি কী ভালো কোনো ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন? তাহলে এই খবরটি আপনার জন্য। বিখ্যাত জুতোর কোম্পানি BATA এর সঙ্গে পার্টনারশীপ করে প্রতি মাসে অনেক টাকা কামাতে পারবেন। আজকের এই প্রতিবেদনে এই বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে আলোচনা করা হলো (New Business Idea)।

মনে রাখবেন, কোনো ব্যবসা শুরু করতে চাইলে সবার আগে তার সোর্স লক্ষ্য করবেন। যদি তা বিশ্বাসযোগ্য হয়, তবেই এই ব্যবসায় অংশগ্রহণ করবেন। আজকাল অনেক অসৎ বা ভুঁয়ো কোম্পানি নানাভাবে মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলছে। তাই ব্যবসার উৎস কোম্পানি সম্পর্কে আগে থেকেই ভালো করে জেনে তবেই ব্যবসা শুরু করবেন।

Google Pay, PhonePe, Paytm ব্যবহার করছেন? সতর্ক হোন এখনই

• কেনো বাটা কোম্পানির সাথে ব্যবসা করবেন?
(১) BATA কোম্পানি সম্পর্কে আজকাল সকলেই কমবেশি কিছু না কিছু জানেন। এটি দেশের অন্যতম বড়ো জুতো প্রস্তুতকারক কোম্পানি।

(২) বাটা ব্র্যান্ড তরুণদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এমন একটি নামি ব্র্যান্ড স্বভাবতই বেশি গ্রাহকদের আকর্ষণ করবে।

(৩) এছাড়া BATA যথেষ্ট বিশ্বস্ত কোম্পানি। কোটি কোটি মানুষ প্রতি বছর এই কোম্পানির জুতো কিনে থাকেন।

(৪) বর্তমানে শুধু ভারতেই নয়, আন্তর্জাতিক বাজারেও BATA যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছে। প্রায় ৭০ টি দেশে এই কোম্পানি তার শোরুম খুলেছে।

(৫) বাটা কোম্পানির বাজার নিয়ন্ত্রণও (Market Control) খুবই ভালো। সারা দেশে প্রায় প্রতিটি ছোটো বড়ো শহরেই বাটার কোনো না কোনো শোরুম রয়েছে।

ফলে এরকম একটি জনপ্রিয় ব্রান্ডের পার্টনার হয়ে ব্যবসা করার সুযোগ হাতছাড়া করবেন না।

৫০০০ টাকার মেশিন কিনে শুরু করুন এই ব্যাবসা, মাসে আয় ৩০ হাজার

• কীভাবে ব্যবসা শুরু করবেন?
আপনার শহরে BATA এর শোরুম খুলতে চাইলে শহরের জনপ্রিয় রাস্তার পাশে জায়গা থাকতে হবে। যদি আপনার এরকম কোনো জায়গা থাকে, তাহলে সেখানে আপনি এই কোম্পানির শোরুম খুলে বিজনেস শুরু করতে পারেন। তবে শোরুম খোলার জন্য আপনাকে ৩০ থেকে ৫০ লক্ষ টাকার মধ্যে বিনিয়োগ করতে হবে। তবে একবার বিনিয়োগ করলেই কেল্লাফতে, এই ব্যবসায় প্রায় ৪৫ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত লাভ করতে পারবেন।

আপনার যদি প্রধান রাস্তার পাশে জমি থাকে এবং এই ব্যবসায় বিনিয়োগ করার জন্য প্রয়োজনীয় মূলধন থাকে তাহলে বাটা কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.bata.in এ গিয়ে আবেদন করতে পারেন।

যদি কোম্পানি আপনার সাথে ব্যবসা করতে চায় তাহলে তাদের তরফ থেকে আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করে নেওয়া হবে। প্রথমে সাধারণত তিন বছরের জন্য চুক্তি হবে। পরে ব্যবসা ভালো হলে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হবে। এইভাবে শোরুম খুলে প্রতি মাসে বহু টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ব্যবসা সংক্রান্ত এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ খবর পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আজই জয়েন হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে