The-price-of-petrol-is-decreased-5-rupees-again-Find-out-the-new-price

দিনদিন লাগামহীনভাবে বেড়ে চলেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। আর এই ক্রমবর্ধমান মূল্যবৃদ্ধির সাথে সাথেই ভাঁড়ারে টান পড়েছে সাধারণ মানুষের। মূল্যবৃদ্ধির দৌড়ে পিছিয়ে নেই পেট্রোল, ডিজেলও (Petrol Price)। যদিও বিশ্বের বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম অনুসারে পেট্রোল, ডিজেলের দাম ওঠানামা করতে থাকে। তবে তাতে পেট্রোল, ডিজেলের বাজারদরে খুব একটা পার্থক্য দেখা যায় না। আর এই মূল্যবৃদ্ধির জেরে রীতিমতো নাজেহাল অবস্থা সাধারণ মানুষের।

কিন্তু এই মুদ্রাস্ফীতির বাজারে সাধারণ মানুষকে খানিকটা স্বস্তি দিয়ে দাম কমলো পেট্রোল এবং ডিজেলের। মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে ৫ টাকা আর ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে ৩ টাকা কমানো হয়েছে। শুক্রবার থেকেই এই নতুন দাম কার্যকরী হতে চলেছে মহারাষ্ট্রে। যার জেরে শুক্রবার থেকে মহারাষ্ট্রে পেট্রোলের সম্ভাব্য দাম হবে লিটার প্রতি ১০৬ টাকা এবং ডিজেলের দাম হবে লিটার প্রতি ৯৪ টাকা।

আবেদন করুন রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পে এবং পেয়ে যান এককালীন ২,০০,০০০ টাকা

প্রসঙ্গত, কেন্দ্র সরকারের তরফে রাজ্যগুলিকে অনুরোধ করা হয়েছিলো সাধারণ মানুষের কল্যাণার্থে যাতে জ্বালানির দাম কমানো হয়। যদিও এই অনুরোধে কোনোরূপ সাড়া দেওয়া হয়নি মহারাষ্ট্রের পূর্বতন সরকারের তরফে। ২ সপ্তাহ পূর্বে একনাথ শিন্ডে ক্ষমতায় এসেই রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে জানিয়েছিলেন যে, এই মূল্যবৃদ্ধির থেকে রাজ্যের সাধারণ মানুষকে খানিকটা স্বস্তি দেওয়া হবে রাজ্য সরকারের তরফে। জ্বালানির উপর থেকে ভ্যাট কমানোর সিদ্ধান্তের কথাও জানিয়েছিলেন তিনি।

তারপরই পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে। রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপের জেরে মুদ্রাস্ফীতি খানিকটা কমবে বলেই আশা রাখছে ওয়াকিবহাল মহল। যদিও এই সিদ্ধান্তের জেরে সরকারের ভাঁড়ারে টান পড়তে চলেছে। পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমানোর জন্য বছরে ৬০০০ কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে রাজ্য সরকারকে।

স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে রাজ্য সরকারের গুরুত্বপূর্ণ আপডেট, এখনই জেনে নিন

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে