Verification-process-of-PM-Kisan-Yojana-has-been-started-Its-compulsory-for-all

আপনি কী পিএম কিষান যোজনার টাকা পেয়ে থাকেন? তাহলে এই খবরটি আপনার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। পিএম কিষান অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি যোজনা প্রকল্পে ২০২২ সালের ভেরিফিকেশনের কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই কৃষি দপ্তরের তরফ থেকে কৃষকদের তালিকা পাঠানো শুরু হয়ে গিয়েছে। সেই তালিকায় যে কৃষকদের নাম রয়েছে তাদের কৃষি দপ্তরে এসে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করাতে হবে (PM Kisan Yojana)। প্রসঙ্গত, অতীতে দেখা গিয়েছে বহু মানুষ পিএম কিষানে আবেদনের যোগ্য না হয়েও এই প্রকল্পে আবেদন করে টাকা পেয়ে যাচ্ছেন; তাদের শনাক্ত করার জন্যই এই প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছে। লিস্টে নাম থাকা কৃষকরা কীভাবে কৃষি দপ্তরে এসে পিএম কিষান প্রকল্পে টাকা পাওয়ার জন্য ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করাবেন, এই ভেরিফিকেশন করাতে কী কী লাগবে ইত্যাদি সমস্ত বিষয় নিয়ে নীচে আলোচনা করা হলো।

• কাদের পিএম কিষান প্রকল্পে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করাতে হবে?
কৃষি দপ্তরের তরফ থেকে বিভিন্ন গ্রাম ও পৌরসভা এলাকায় পিএম কিষান প্রকল্পের ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন ও পুনর্নবীকরণের (Renewal) তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যাদের নাম এই তালিকায় রয়েছে তাদের কৃষি দপ্তরে গিয়ে এই ভেরিফিকেশন করাতে হবে।

SBI চালু করলো নতুন নিয়ম, না মানলে গুনতে হবে জরিমানা

• পিএম কিষাণ প্রকল্পে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করাতে কী কী লাগবে?
(১) স্বঘোষণা পত্র (Self Declaration Form)

(২) ভোটার কার্ডের জেরক্স কপি (স্বামী ও স্ত্রী উভয়েরই)

(৩) আধার কার্ডের জেরক্স কপি (স্বামী ও স্ত্রী উভয়েরই)

(৪) রেশন কার্ডের জেরক্স কপি

(৫) ব্যাংকের পাসবইয়ের জেরক্স কপি

(৬) পিএম কিষান প্রকল্পে পেমেন্ট স্ট্যাটাস এর জেরক্স / পিএম কিষান অ্যাপ এ স্ক্রিনশটের জেরক্স কপি যেখানে গ্রামের নাম স্পষ্টভাবে উল্লেখ থাকবে / এ ডি এ অফিস থেকে পাঠানো তালিকার জেরক্স (নিজের নামে টিক দিতে হবে)

(৭) জমির রেকর্ড (ROR)

জমির রেকর্ডের (ROR) এর ক্ষেত্রে শর্ত দেওয়া হয়েছে। যাদের জমির রেকর্ড ১ লা ফেব্রুয়ারী,২০১৯ এর আগের তারা শুধুমাত্র রেকর্ডটির কপি জমা করতে পারবেন। আর যাদের জমির রেকর্ড ১লা ফেব্রুয়ারী,২০১৯ তারিখের পরে রয়েছে তাদের মধ্যে উত্তরাধিকার / ওয়ারিশ সূত্রে পাওয়া জমির ক্ষেত্রে পিএম কিষানের ভেরিফিকেশন করা যাবে, অন্য কোনোভাবে উক্ত তারিখের পরে জমির রেকর্ড থাকলে পিএম কিষাণে ভেরিফিকেশন করানো যাবে না। তবে যাদের জমির রেকর্ড ১লা ফেব্রুয়ারী,২০২২ এর পরে (ওয়ারিশ সূত্রে পাওয়া) তাদের জমির রেকর্ডের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট অঞ্চল প্রধান প্রদত্ত সার্টিফিকেট যেখানে উত্তরাধিকার সূত্রে জমি পাওয়ার কথা লেখা থাকবে সেটিও জমা করতে হবে।

এই ২০ টি অ্যাপ মোবাইলে থাকলে পড়তে হতে পারে বিপদে, এখনই দেখে নিন অ্যাপের লিস্ট

• কীভাবে পিএম কিষান প্রকল্পে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করাবেন?
তালিকায় আপনার নাম থাকলে উপরোক্ত সমস্ত ডকুমেন্টসগুলো নিয়ে আপনার নিকটবর্তী কৃষি দপ্তরে গিয়ে সংশ্লিষ্ট আধিকারিককে দেখাতে হবে। তিনি আপনার দেওয়া নথিগুলো যাচাই করে সত্য মনে করলে আপনার ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন সফল হবে এবং আপনি পিএম কিষান প্রকল্পের পরবর্তী কিস্তির টাকা পাবেন। যদি আপনি ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশনে ব্যর্থ হন, তাহলে প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পের পরবর্তী কিস্তির টাকা পাবেন না।

ইতিমধ্যেই অনেক অঞ্চলে এই তালিকা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আপনার নাম এই তালিকায় রয়েছে কিনা তা আপনি খোঁজ নিয়ে দেখে নিতে পারেন। এছাড়া আবার বহু কৃষককে ফোনের মাধ্যমেও পিএম কিষান প্রকল্পের ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন করানোর জন্য যোগাযোগ করা হচ্ছে। তবে সাবধান, কখনও প্রতারকদের খপ্পড়ে পড়বেন না। ভেরিফিকেশনের জন্য কাউকে কোনোরকম টাকা দিবেন না।

সরকারি প্রকল্প সংক্রান্ত এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আজই জয়েন হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে