Find-out-how-to-apply-for-the-renewal-of-Swami-Vivekananda-Scholarship

পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যন্ত অঞ্চলে দরিদ্র এবং পিছিয়ে পড়া জনজাতির ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চশিক্ষা লাভের ক্ষেত্রে এবং তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গঠনের ক্ষেত্রে সাহায্য করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে যেসকল স্কলারশিপ প্রদান করা হয়ে থাকে সেই সকল স্কলারশিপের মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য স্কলারশিপ হলো স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ (Swami Vivekananda Scholarship)। জেনারেল, তপশিলি জাতি ও উপজাতি এবং ওবিসি যেকোনো সম্প্রদায় ভুক্ত ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারেন। কয়েক মাস পূর্বেই পশ্চিমবঙ্গের ছাত্র ছাত্রীদের মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। আর তার ঠিক পর পরই আগস্ট মাসের ১৭ তারিখ থেকে অর্থাৎ ১৭ই আগষ্ট,২০২২ তারিখ থেকে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের আবেদনের ফর্ম ফিল আপ শুরু হয়েছে। আর স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের আবেদনের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের বিবিধ সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে, বিশেষত রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে। আর তাই আজ আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের রিনিউয়াল সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছি। এই পোস্টে আমরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের রিনিউয়াল সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করতে চলেছি।

• চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে আবশ্যক যোগ্যতা কি কি :-
১. এই স্কলারশিপের রিনিউয়ালের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীদের অন্ততপক্ষে ৬০ শতাংশ নম্বর নিয়ে একাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
২. স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে আবেদনের জন্য কলেজে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীদের অন্ততপক্ষে ৬০ শতাংশ নম্বর নিয়ে বিগত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
৩. যে সকল শিক্ষার্থীরা বর্তমানে স্নাতকোত্তরে শিক্ষাগ্রহণ করছেন তাদের এই স্কলারশিপের রিনিউয়ালের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে বিগত পরীক্ষায় অবশ্যই ৫৩ শতাংশ নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।
৪. এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদনকারী পরিবারের বাৎসরিক আয় ২.৫ লক্ষ টাকার কম হতে হবে।

প্রত্যেক স্কুল শিক্ষক-শিক্ষিকাকে পাঠানো হচ্ছে নোটিশ, ১৫ দিনের মধ্যে দিতে হবে উত্তর

• এই স্কলারশিপের রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে অনুদানের পরিমাণ:-
স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের ক্ষেত্রে ছাত্রছাত্রীরা বিগত বছরে ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশনের পরে তাদের কোর্সের ওপর ভিত্তি করে যতো টাকা অনুদান পেয়েছেন রিনিউয়ালের ক্ষেত্রেও তারা ওই একই অংকের টাকার অনুদান পাবেন। যদিও স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের নির্দেশাবলীতে প্রতিমাসে শিক্ষার্থীরা ঠিক কতো টাকা করে পাবেন তা উল্লেখ করা থাকে, কিন্তু ছাত্রছাত্রীদের এই টাকা প্রতি মাসে আলাদাভাবে দেওয়া হয় না বছরের একটি নির্দিষ্ট সময়ে এক বছরের সম্পূর্ণ অনুদান শিক্ষার্থীদের এককালীন দেওয়া হয়ে থাকে।

• আবেদন পদ্ধতি:-
এই স্কলারশিপের রিনিউয়ালের সম্পূর্ণ পদ্ধতিটি আপনারা অনলাইনের মাধ্যমেই সম্পন্ন করতে পারবেন। এর জন্য প্রথমেই স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://svmcm.wbhed.gov.in -এ যেতে হবে এবং রিনিউয়ালের প্রয়োজনীয় ফর্মটি পূরণ করতে হবে। এরপর ফর্মটির প্রিন্ট আউট প্রয়োজনীয় নথি সহকারে আবেদনকারীর স্কুল অথবা কলেজ অথবা বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিতে হবে।

• এই স্কলারশিপের রিনিউয়ালের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি কি কি:-
১. আবেদনকারী ছাত্র-ছাত্রীদের বিগত পরীক্ষার মার্কশিট। শিক্ষার্থী যদি সেমিস্টার সিস্টেমে পাঠরত হয় তবে বিগত দুটি সেমিস্টারের মার্কশিট। যদি দুটি সেমিস্টারের মার্কশিট না দেওয়া হয় তবে অনেক ক্ষেত্রেই ছাত্র-ছাত্রীদের আবেদনটি রিজেক্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়ে যায়। অনেকক্ষেত্রেই শিক্ষার্থীরা একটি সেমিস্টার মার্কশিট পেলেও অন্য সেমিস্টারের মার্কশিট হাতে পান না। সেক্ষেত্রে অনলাইন মার্কশিট দিয়ে আবেদন করতে পারেন অথবা হাতে মার্কশিট পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেন।
২. বর্তমানে যে শ্রেণীতে কিংবা সেমিস্টারে পাঠরত তাতে ভর্তির রশিদ। ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশনের ক্ষেত্রে পরিবারের বাৎসরিক আয়ের সার্টিফিকেট লাগলেও রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে তা প্রয়োজন হয়না।

সঠিক পদ্ধতিতে কিভাবে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করবেন জেনে নিন

যদিও বর্তমানে কেবলমাত্র একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত শিক্ষার্থীদের ফ্রেশ এবং রিনিউয়ালের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে, তবে আশা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরে পাঠরত শিক্ষার্থীদের ফ্রেশ এবং রিনিউয়ালের জন্য আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে