Start-this-business-with-small-capital-and-earn-millions-monthly

আপনি কী ভালো কোনো ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন? তাহলে আজকের খবরটি আপনার অনেক কাজে লাগবে। আজকে আপনাদের সাথে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যবসা সম্পর্কে আলোচনা করবো যা আপনি নিজে থেকেই শুরু করতে পারবেন। বর্তমানে এমনিতেই বেশিরভাগ মানুষ চাকরি ছেড়ে ব্যবসার প্রতি বেশী ঝুঁকেছেন। অনেকেই ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন, কিন্তু কোন ব্যবসা শুরু করা মঙ্গলজনক তা অনেকেই বুঝতে পারছেন না। আজকের এই প্রতিবেদনে তাই আপনার সাথে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট (Event Management Business) নামক এই চমকপ্রদ বিজনেস আইডিয়াটি সম্পর্কে আলোচনা করবো, যা থেকে আপনি প্রচুর পরিমান অর্থ ইনকাম করতে পারবেন। তাহলে দেরী না করে চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক এই ব্যবসা সম্পর্কে (New Business Idea)।

• ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা কী?

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা হলো কোনো অনুষ্ঠান ভালো করে পরিচালনার দায়িত্ব নেওয়া। অনুষ্ঠান বিভিন্নরকম হতে পারে যেমন:- পারিবারিক অনুষ্ঠান (বিয়েবাড়ি, অন্নপ্রাশন,জন্মদিনের পার্টি, এনগেজমেন্ট, মেহেন্দি, বড়ো কোনো পুজোর আয়োজন প্রভৃতি), ব্যবসায়িক অনুষ্ঠান (কোনো বিজনেস মিটিং, বিজনেস পার্টি ইত্যাদি), সরকারি অনুষ্ঠান (সরকারি মিটিং, প্রশাসনিক অনুষ্ঠান, স্থানীয় প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রভৃতি)। কোনক্ষেত্রে আপনি এই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা করতে চান তা আগে থেকেই ভেবে নেবেন। সাধারণত গ্রামগঞ্জে ও শহরে পারিবারিক অনুষ্ঠানগুলোর ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসা করে আপনি মোটা টাকা কামাতে পারেন।

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট এর ব্যবসা কীভাবে শুরু করবেন?
এই ব্যবসা শুরু করার জন্য প্রথমেই দরকার আপনার নিজের একটি টীম তৈরী করার । যেমন:- ধরলাম আপনি একটি বিয়েবাড়ি পরিচালনা করার দায়িত্ব নিয়েছেন। তাহলে আপনার দরকার খাবার রান্না করার লোকজন ও ক্যাটারিং কর্মী, প্যান্ডেল ও আলোকসজ্জার কর্মী, ক্যামেরাম্যান, ব্যান্ডপার্টি, মিউজিক ইত্যাদি নানান রকমের লোকজন। আপনি প্রথমেই এইরকম লোকেদের সাথে মিলে একটি টীম তৈরী করে নেবেন। চেষ্টা করবেন তুলনামূলক কম আর্থিক খরচের মধ্যে ভালো একটি জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান সকলকে উপহার দেওয়ার। ফলে আপনার পরিচিতি ও সুনাম উভয়ই বাড়বে।

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের গ্রাহকের জন্য বড়ো খবর, এই মাসের মধ্যে সকল গ্রাহককে করতে হবে এই কাজ, নাহলে পড়তে হবে বিপদে

মার্কেটিং ও বিজ্ঞাপনের দিকেও বিশেষ নজর দিবেন। আপনার বিজ্ঞাপনগুলোকে যথেষ্ট আকর্ষণীয় করে বানাবেন যাতে সাধারণ মানুষের নজরে ধরে। সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার প্রতিটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের কাজের ছবি, ভিডিও শেয়ার করবেন যাতে আপনার কাজ সম্পর্কে সাধারণ মানুষ ভালো ধারণা পেতে পারে। তবে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যবসা করার জন্য কতগুলি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। যেমন:- নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করার। গ্রাহকের কথা মতো অনুষ্ঠান সম্পর্কিত সমস্ত কাজ সময়ের মধ্যে করে দিতে হবে। এরজন্য আপনার টীমকেও সময়নিষ্ঠ (Punctual) হতে হবে। চেষ্টা করবেন গ্রাহকের দেওয়া নির্ধারিত বাজেটের মধ্যে সব কাজ সেরে ফেলার। কখনও কোনো নতুন কিছু আয়োজন করার পূর্বে সবসময় গ্রাহকের পরামর্শ নিয়ে নেবেন। এইভাবে একটি ভালো টীম গঠন করে সমস্ত কাজ ভালোভাবে সম্পন্ন করলেই আপনার ব্যবসা ধীরে ধীরে বাড়তে শুরু করবে। ব্যবসা প্রসারিত হতে থাকলে আপনার অভিজ্ঞতাও বাড়বে, ফলে গ্রাহকদেরকে আপনি নিজে থেকে নানারকম নিত্যনতুন আইডিয়া দিতে পারবেন। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ব্যবসায় উপার্জনের হার অনেক ভালো। একটি ছোটোখাটো অনুষ্ঠান পরিচালনা করে আপনি সহজেই ২৫ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকার মধ্যে কামাতে পারবেন। আর বিয়েবাড়ি, অন্নপ্রাশন এইসব বড়ো অনুষ্ঠান পরিচালনার কাজ করতে পারলে লক্ষাধিক টাকা আয়ের সম্ভাবনাই বেশী। ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যবসার ক্ষেত্রে আগে থেকেই গ্রাহকদের সাথে চুক্তি করে নেওয়া শ্রেয়।

ব্যবসা-বাণিজ্য সম্পর্কিত এইরকম আরও নানান খবর পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের টেলিগ্রাম আইকনে ক্লিক করে আজই জয়েন হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে