The-application-process-of-these-five-WB-Scholarships-has-been-started-Find-out-which-scholarships

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে ক্রমাগত মুদ্রাস্ফীতি বাড়ছে। এমতাবস্থায় পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন স্কুলে পাঠরত শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের আর্থিক দুরবস্থার জন্য উচ্চশিক্ষা লাভের ক্ষেত্রে পিছিয়ে না যায়, তাই সরকারের তরফে এই সকল শিক্ষার্থীদের তাদের যোগ্যতা অনুসারে বিভিন্ন স্কলারশিপ (WB Scholarship) প্রদান করা হয়ে থাকে। তবে শুধু রাজ্য সরকারের তরফেই নয়, বিভিন্ন প্রাইভেট সংস্থার তরফেও ভিন্ন ভিন্ন ধরনের স্কলারশিপ প্রদান করা হয়ে থাকে। কিছুদিন পূর্বেই পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। ফলত কোন স্কলারশিপে কবে আবেদন করতে পারবে তা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে জল্পনা বাড়ছে। আর শিক্ষার্থীদের এসকল ক্ষেত্রে সাহায্য করার জন্য আজ আমরা আলোচনা করতে চলেছি, এমন ৫ টি স্কলারশিপের বিষয়ে যেগুলির আবেদন বর্তমানে চলছে।

• চলুন তবে এই স্কলারশিপগুলির সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক:-

১. স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ (Swami vivekananda merit cum means Scholarship):- পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের তরফে রাজ্যের পিছিয়ে পড়া এবং দরিদ্র শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য যেসকল স্কলারশিপ চালু করা হয়েছে তার মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য স্কলারশিপ হলো স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের অধীনে জেনারেল ক্যাটাগরি ভুক্ত ছাত্র-ছাত্রী থেকে তপশিলি জাতি ও উপজাতি এবং ওবিসি সম্প্রদায়ভুক্ত ছাত্রছাত্রীরা অনুদান পেয়ে থাকেন। একাদশ শ্রেণিতে পাঠরত শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে স্নাতকোত্তর স্তরে পাঠরত ছাত্র ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের অধীনে অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন। বর্তমানে এই স্কলারশিপের আবেদন চলছে। যদিও বর্তমানে কেবলমাত্র একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত ছাত্রছাত্রীরা ফ্রেশ এবং রিনিউয়ালের জন্য অ্যাপ্লিকেশন করতে পারবেন। ১৭ ই আগস্ট, ২০২২ তারিখ থেকে একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর ফ্রেশ এবং রিনিউয়ালের অ্যাপ্লিকেশন শুরু হয়েছে। আশা করা হচ্ছে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীদের এই স্কলারশিপের অধীনে অনুদানের জন্য আবেদনের প্রক্রিয়া শীঘ্রই শুরু করা হবে।

CSC Portal এর মতো এই পোর্টালে লগ‌ইন করে করা যাবে সমস্ত রকম সরকারি কাজ। আজই রেজিষ্ট্রেশন করে ইনকাম শুরু করুন।

২. ওয়েসিস স্কলারশিপ (Oasis Scholarship):- পশ্চিমবঙ্গের পিছিয়ে পড়া জনজাতির দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে উচ্চশিক্ষা লাভ করতে পারে তার জন্য ওয়েসিস স্কলারশিপ প্রদান করা হয়ে থাকে। এই স্কলারশিপটি কেবলমাত্র তপশিলি জাতি এবং উপজাতি, ওবিসি সম্প্রদায়ভুক্ত শিক্ষার্থীদের প্রদান করা হয়। নবম শ্রেণী কিংবা তার চেয়ে উচ্চতর শ্রেণীতে পাঠরত শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য শিক্ষার্থীদের অন্ততপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর নিয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে। বর্তমানে এই স্কলারশিপের আবেদন চলছে এবং এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ এখনো পর্যন্ত অফিশিয়াল ভাবে জানানো হয়নি।

৩. ঐক্যশ্রী স্কলারশিপ (Aikyashree Scholarship):- পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘু শিক্ষার্থীদের (মুসলিম, শিখ, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, জৈন, পারসি) জন্য যে সকল স্কলারশিপ চালু করা হয়েছে, তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটি স্কলারশিপ হলো ঐক্যশ্রী স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপের অধীনে পশ্চিমবঙ্গের প্রথম শ্রেণী থেকে শুরু করে পিএইচডি স্তরে পাঠরত শিক্ষার্থীরা অনুদান পেয়ে থাকেন। তবে এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের অন্ততপক্ষে ৫০ শতাংশ নম্বর নিয়ে প্রতিটি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। বর্তমানে এই স্কলারশিপের আবেদন চলছে। ১৫ ই আগস্ট থেকে এই স্কলারশিপের আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং ৩১ শে অক্টোবর পর্যন্ত এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদন করতে পারবেন।

শুরু হলো ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের ঐক্যশ্রী স্কলারশিপের আবেদন প্রক্রিয়া, জেনে নিন বিস্তারিত

৪. ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টাল (National Scholarship Portal):- ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টাল হলো একটি সরকারি স্কলারশিপ যেটি কেন্দ্র, রাজ্য এবং UGC (University Grants Commission of India) দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই স্কলারশিপ পোর্টালের অধীনে শিক্ষার্থীরা তাদের যোগ্যতা অনুসারে স্কলারশিপ নির্বাচন করে আবেদন করতে পারবেন। কোনো শিক্ষার্থী যেনো এই ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টালের অধীনে যে সকল স্কলারশিপ রয়েছে তা থেকে বাদ না পড়ে তার জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপের ক্ষেত্রে বিভিন্ন যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়েছে। ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://scholarships.gov.in/ থেকে সমস্ত শিক্ষার্থীরা এই পোর্টালের আওতায় থাকা স্কলারশিপগুলির অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন। বর্তমানে এই স্কলারশিপগুলির আবেদন চলছে। ন্যাশনাল স্কলারশিপ পোর্টালের তথ্য অনুসারে বিভিন্ন স্কলারশিপের জন্য আবেদনের শেষ তারিখ বিভিন্ন।

৫. সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপ(Sitaram Jindal Scholarship):- সীতারাম জিন্দাল ফাউন্ডেশন (SJF) ভারতের সুপরিচিত এনজিওগুলির মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য ফাউন্ডেশন। সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপ সীতারাম জিন্দাল ফাউন্ডেশন (SJF), যা Sitaram Jindal Trustee এর পক্ষ থেকে প্রদান করা হয়। এটি একটি প্রাইভেট স্কলারশিপ। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে স্বীকৃত যেকোনো বোর্ড থেকে মাধ্যমিক উত্তীর্ণ, উচ্চ মাধ্যমিক উত্তীর্ণ, স্নাতক স্তরে, ডিপ্লোমা, ইঞ্জিনিয়ারিং, নার্সিং, ফার্মেসি, মেডিক্যালের যেকোনো কোর্সে পাঠরত ছাত্রছাত্রীরা ছাত্রছাত্রীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। বর্তমানে এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন চলছে, তবে এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন কেবলমাত্র অফলাইনেই করা যাবে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে