To-get-free-ration-these-conditions-have-to-be-followed-Central-Government-has-issued-new-rules

আপনি কি পশ্চিমবঙ্গের একজন রেশন উপভোক্তা? তবে এই খবরটি আপনার জন্য। রাজ্যজুড়ে রেশন কার্ড নিয়ে বিতর্ক যেনো থামার নামই নিচ্ছে না। আর এরই মধ্যে কেন্দ্র সরকারের তরফে কয়েকটি শর্ত সাপেক্ষে রেশন কার্ড সারেন্ডার করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সমস্ত ভারতব্যাপী মানুষকে। কেন্দ্র সরকারের তরফে এও জানানো হয়েছে যে, সঠিক সময়ে যে সকল গ্রাহক রেশন কার্ড সারেন্ডার করবেন না তাদেরকে জরিমানা পর্যন্ত দিতে হতে পারে। আর কেন্দ্র সরকারের এই ঘোষণা ঘিরে রীতিমতো ভয় বাড়ছে আমজনতার মধ্যে। কাদের এই রেশন কার্ড সারেন্ডার করতে হবে তা নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠছে জনসাধারণের মধ্যে। আর তাই আজ আমরা আপনাদের এ সকল সমস্যার সমাধান নিয়ে হাজির হয়েছি। আজ আমরা আলোচনা করতে চলেছি, কাদের রেশন কার্ড সারেন্ডার করতে হবে, কোন কোন শর্তসাপেক্ষে রেশন কার্ড সারেন্ডার করতে হবে ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলি (Free Ration Rules)।

• চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কাদের রেশন কার্ড সারেন্ডার করতে হবে:-
করোনা মহামারীর জেরে সমগ্র ভারত জুড়ে প্রায় দু’বছর লকডাউন ছিল। আর তাতে রীতিমতো বিপাকে পড়েছিল সাধারণ মানুষ। সাধারণ মানুষকে বিপদ থেকে উদ্ধার করতে কেন্দ্র সরকারের তরফে চালু করা হয়েছিল বিনামূল্যে রেশন ব্যবস্থা। কিন্তু বিনামূল্যে রেশন চালু করার পর থেকেই কেন্দ্র সরকারের তরফে পরিলক্ষিত হয়েছিলো যে, কিছু অসাধু মানুষ, যারা এই প্রকল্পের যোগ্য নন তারাও এই বিনামূল্যে রেশন প্রকল্পের সুবিধা নিচ্ছেন। যার জেরে অনেক প্রয়োজনশীল মানুষই এই প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারছেন না। এমতাবস্থায় কেন্দ্র সরকারের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যাতে এই অযোগ্য ব্যক্তিরা তাদের রেশন কার্ড সারেন্ডার করেন। যদি সময়ের মধ্যে রেশন কার্ড সারেন্ডার না করা হয় তবে আইনি ব্যবস্থা পর্যন্ত নেওয়া হতে পারে কেন্দ্র সরকারের তরফে, এমনটাই জানা গেছে বিভিন্ন রিপোর্ট অনুসারে।

প্যান কার্ড সংক্রান্ত এই নিয়ম না মানলে দিতে হবে ১০,০০০ টাকা জরিমানা, জেনে নিন বিস্তারিত

• এবিষয়ে কি নিয়ম রয়েছে:-
বিনামূল্যে রেশন প্রকল্প চালু হওয়ার পূর্বে কেন্দ্র সরকারের তরফে জানানো হয়েছিলো, কারা এই রেশন পাওয়ার যোগ্য নন। চলুন তবে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক, কারা বিনামূল্যে রেশন পাবেন না:-
১. যেসকল গ্রাহকের নিজের আয় থেকে অর্জিত ১০০ বর্গমিটারের জমি কিংবা ফ্ল্যাট অথবা বাড়ি রয়েছে তারা বিনামূল্যে রেশন পাবেন না।
২. যে সকল গ্রাহকদের চার চাকার গাড়ি কিংবা ট্রাক্টর রয়েছে তারা বিনামূল্যে রেশনের সুবিধা পাবেন না।
৩. গ্রামের ক্ষেত্রে যে সকল গ্রাহকদের বার্ষিক ২ লক্ষ টাকা আয় রয়েছে এবং শহরের ক্ষেত্রে যে সকল গ্রাহকদের বার্ষিক ৩ লক্ষ টাকা কিংবা তার বেশি আয় রয়েছে তারা এই প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারবেন না।

যে সকল ব্যক্তিরা এসমস্ত থাকা সত্ত্বেও বিনামূল্যে রেশনের সুবিধা ভোগ করছেন তাদের অবিলম্বে তহসিল এবং ডিএসও (DSO) অফিসে রেশন কার্ড সারেন্ডার করতে হবে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে