Find-out-the-Lottery-Price-Winning-Tricks-of-selecting-winning-lottery-ticket-numbers

রাতারাতি নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের একমাত্র উপায় হলো লটারির টিকিট কাটা। আপনিও যদি ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য প্রতিনিয়ত লটারির টিকিট কেটে থাকেন, তবে এই খবরটি আপনার জন্য। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যারা লটারি টিকিট কেটে থাকেন তাদের পুরস্কার না পাওয়ার একমাত্র কারণ হলো টিকিটের সঠিক নম্বরটি নির্বাচন না করতে পারা। তবে আজ আমরা সকলের সুবিধার খাতিরে এমন কিছু বিশেষ পদ্ধতি (Lottery Price Winning Tricks) নিয়ে হাজির হয়েছি, যে পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করলে আপনারা খুব সহজেই লটারির টিকিটের সঠিক নম্বর নির্বাচন করতে পারবেন।

• চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক লটারির টিকিটের সঠিক নম্বর নির্বাচনের পদ্ধতিগুলি কি কি:-
১. লটারি টিকিটের সঠিক নম্বর নির্বাচনের ক্ষেত্রে শেষ পাঁচটি নম্বর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে ব্যাক নাম্বার থেকে শুরু করে মিডল নম্বর পর্যন্ত নির্বাচন করা গেলেও শেষ সংখ্যাটির ডিজিট দুটি নির্বাচনের ক্ষেত্রে অধিকাংশ মানুষকেই যথেষ্ট সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। তবে সঠিক শেষ নম্বর নির্বাচনের সবথেকে সহজ পদ্ধতিটি হলো, কোনো লটারির ব্যাক নম্বর এবং মিডল নম্বরের প্রথমে যে দুটি সংখ্যা রয়েছে সেই দুটি সংখ্যার যোগফল এবং শেষ নম্বরের দুটি ডিজিটের যোগফলের বিয়োগফল ০ অথবা -১ হবে। অর্থাৎ কোনো লটারির শেষ পাঁচটি নম্বর যদি ৭৬৬৪৯ হয়ে থাকে তবে, শেষ নম্বরে যে ডিজিট দুটি রয়েছে তাদের যোগফল হয় (৭+৬) = ১৩ এবং ব্যাক নম্বর ও মিডিল নম্বরের প্রথম সংখ্যাটির যোগফল ১৩, এদের বিয়োগফল (১৩-১৩)=০। এই পদ্ধতিতে লটারির টিকিটটের নম্বর নির্বাচন করে দেখতে পারেন আপনার ভাগ্যে পুরস্কার রয়েছে কিনা।

এছাড়া কোনো কোনো ক্ষেত্রে লটারির ব্যাক নম্বর এবং মিডল নম্বরের প্রথম ডিজিটটি পাশাপাশি বসে যে সংখ্যাটি তৈরি করে সেই সংখ্যাটি এবং শেষ নম্বরে থাকা সংখ্যা দুটির যোগফলের বিয়োগফল ০ অথবা -১ হলে ওই টিকিটটি আপনারা নির্বাচন করে দেখতে পারেন। ধরুন, কোনো ক্ষেত্রে যদি লটারি নম্বর ১৪৯৬৮ হয়, তবে শেষ সংখ্যার ডিজিট দুটির যোগফল (৬+৮)=১৪ এবং ব্যাক নম্বর এবং মিডল নম্বরের প্রথম সংখ্যাটি পাশাপাশি বসে যে সংখ্যাটি তৈরি করে তাও ১৪। অর্থাৎ এদের বিয়োগফল দাঁড়ায় ০। সুতরাং এই পদ্ধতি অনুসরণ করেও আপনি লটারি কেটে দেখতে পারেন পুরস্কার জিততে পারেন কিনা।

পিএম কিষাণের ব্যাংক স্ট্যাটাস under revalidation থাকলে কি করবেন জেনে নিন

২. লটারির সঠিক শেষ নম্বরটি নির্বাচনের ক্ষেত্রে আরও একটি পদ্ধতি রয়েছে, সেটি হলো:-
কোনো লটারির ব্যাক নম্বর এবং মিডিল নম্বরের প্রথম ভিজিটটির বিপরীত সংখ্যার যোগফল এবং শেষ নম্বরে যে ডিজিট দুটি রয়েছে তাদের যোগফলের বিয়োগফল ০ অথবা -১ হবে। ধরুন, কোন লটারির শেষ পাঁচটি নম্বর যদি ১৩৬৪৯ হয় তবে ব্যাক নম্বর (১) এবং মিডল নম্বর (৩) এর প্রথম সংখ্যাটির বিপরীত সংখ্যা দুটি হলো যথাক্রমে ৬ এবং ৮, এদের যোগফল (৬+৮)=১৪। শেষ সংখ্যাটির ডিজিট দুটির যোগফল হল (৪+৯)=১৪। সুতরাং এদের বিয়োগফল হয় (১৩-১৪)=-১। এই পদ্ধতিতে হিসেব কষে লটারি টিকিট কেটে দেখতে পারেন আপনার ভাগ্যে পুরস্কার আছে কিনা।

এছাড়াও লটারির সঠিক নম্বর নির্বাচনের ক্ষেত্রে ব্যাক নম্বরের সংখ্যাটি এবং মিডল নম্বরের প্রথম সংখ্যাটির যোগফল এবং লাস্ট নম্বরে যে ডিজিট দুটি রয়েছে তাদের বিপরীত সংখ্যার যোগফলের বিয়োগফল ০ অথবা -১ হলেও আপনারা সেই সংখ্যাটি নির্বাচন করতে পারেন। অর্থাৎ ধরুন, কোন ক্ষেত্রে একটি লটারির শেষ পারছি নম্বর ৬৩২০০, এক্ষেত্রে ব্যাক নম্বর এবং মিডিল নম্বরের প্রথম সংখ্যাটির যোগফল ৯ এবং শেষ সংখ্যাটির ডিজিট দুটির বিপরীত সংখ্যার যোগফল (৫+৫) =১০। সুতরাং এদের বিয়োগফল দাঁড়ায় (৯-১০)=-১। এই পদ্ধতিতে টিকিট কেটে আপনি দেখতে পারেন পুরস্কার জিততে পারেন কিনা।

৩. উপরোক্ত পদ্ধতিগুলি ছাড়াও লাস্ট নম্বর নির্বাচনের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি হলো, কোন লটারির ব্যাক নম্বর এবং মিডল নম্বরের দ্বিতীয় ডিজিটে যে সংখ্যাটি রয়েছে লাস্ট নম্বরের শেষ ডিজিটটি ওই সংখ্যাগুলি হবে। অর্থাৎ ধরুন, কোন লটারির ব্যাক নম্বর ০, মিডল নম্বর ৪২ সুতরাং শেষ নম্বরের সম্ভাব্য লাস্ট ডিজিটটি হবে ২ অথবা ৪।

লটারিতে আপনি পুরস্কার জিতবেন কিনা তা অনেকাংশেই নির্ভর করছে আপনার দক্ষতা এবং পর্যবেক্ষণ ক্ষমতার উপর। এছাড়া ভাগ্য তো রয়েছেই। আমরা কেবলমাত্র কতগুলি বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতি তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে