know-the-eligibility-criteria-of-primary-tet-examination-which-will-start-after-puja-notification-published-by-west-bengal-government

সবশেষে পশ্চিমবঙ্গের প্রাইমারি টেট নিয়ে বিতর্কের অবসান ঘটলো। এবারে সমস্ত বিতর্কে ইতি টেনে চাকরিপ্রার্থীদের জন্য রয়েছে সুখবর। খুব শীঘ্রই রাজ্যজুড়ে TET পরীক্ষা নেওয়া হবে এবং নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। বিগত ৯ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে আয়োজিত একটি বৈঠকে কার্যত এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিলো। এরপর একটি প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের বোর্ড সভাপতি গৌতম পাল রাজ্যের জনসাধারণের উদ্দেশ্যে এই বৈঠকে যে সিদ্ধান্তগুলি নেওয়া হয়েছে সেগুলি জানিয়েছিলেন (TET examination)।

তবে এই সমস্ত সিদ্ধান্ত ঘিরে নানা রকম জল্পনা সৃষ্টি হলেও নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হলে সেক্ষেত্রে কারা আবেদনের যোগ্য তা নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে গুঞ্জনের অবসান নেই। আর তাই আজ আমরা সকল চাকরিপ্রার্থীদের সুবিধার্থে এই পোস্টে আলোচনা করতে চলেছি, নতুন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হলে কারা আবেদন করতে পারবেন তা সম্বন্ধিত বিস্তারিত তথ্য।

• পশ্চিমবঙ্গে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষক নিয়োগ শুরু হলে কারা আবেদন করতে পারবেন ?
পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের বোর্ড সভাপতি গৌতম পাল মহাশয় ইতিপূর্বে প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে সমগ্র রাজ্যের চাকরিপ্রার্থীদের উদ্দেশ্যে জানিয়েছিলেন যে, প্রাইমারি TET পরীক্ষা পুজোর পরই নেওয়া হবে, তার আগে কোনোমতেই TET নেওয়া সম্ভব নয়। এর পাশাপাশি তিনি চাকরিপ্রার্থীদের আরও আশ্বাস দিয়েছেন যে, এবার থেকে প্রতি বছর নেওয়া হবে টেট পরীক্ষা।

আবেদন করুন SBI আশা স্কলারশিপে এবং পেয়ে যান বার্ষিক ১৫০০০ টাকা

তবে নতুন করে টেট নেওয়ার ক্ষেত্রে নতুন চাকরিপ্রার্থীরা যাতে আবেদন করতে পারেন এবং চাকরি পেতে পারেন সেদিকে নজর দেওয়া হবে পর্ষদের পক্ষ থেকে। এখানেই শেষ নয়, এর পাশাপাশি যেসকল চাকরিপ্রার্থীরা আগেই টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন এবার তাদের নিয়োগ প্রক্রিয়াও শীঘ্রই শুরু করা হবে বলেই জানা গিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে যেসমস্ত চাকরিপ্রার্থীরা আগে থেকে টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে রয়েছেন, তাদের বয়স অবশ্যই ৪০ এর মধ্যে হতে হবে।

বিভিন্ন রিপোর্ট অনুসারে আরও জানা গিয়েছে যে, নতুন করে নিয়োগের ক্ষেত্রে পর্ষদের পক্ষ থেকে সমস্ত নিয়ম মেনেই চাকরিপ্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে। এর পাশাপাশি সমগ্র প্রক্রিয়ায় যাতে স্বচ্ছতা বজায় থাকে এবং প্রকৃত যোগ্য প্রার্থীরা যাতে চাকরি পায় সেদিকে অবশ্যই নজর রাখা হবে। পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের এই সিদ্ধান্তে সমগ্র রাজ্যের চাকরিপ্রার্থীরা নতুন করে আশায় বুক বাঁধছেন।

স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে উঠে এলো গুরুত্বপূর্ণ আপডেট, এখনই জেনে নিন

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে