Madhya-Shiksha-Parshad-has-ordered-Exam-cancellation-due-to-the-special-west-bengal-holiday-on-6th-September

পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে বিশেষ ঘোষণা করা হলো মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে। করোনার পর স্বাভাবিকভাবে সমস্ত কিছু শুরু হলেও আবারও বাতিল হতে চলেছে স্কুলের পরীক্ষা (Exam cancellation)। করোনার পর এবছর প্রথম স্বাভাবিকভাবে পুজো উদযাপন করতে চলেছে বাঙালি। বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপুজোর এখনও প্রায় একমাস দেরী। কিন্তু ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে পুজোর সমস্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়ে গেছে। অক্টোবরে পুজো হলেও চলতি মাসে অর্থাৎ সেপ্টেম্বর মাসে উৎসব হোক বা অন্য কারণে সরকারি ছুটির সংখ্যা যথেষ্টই কম। কিন্তু চলতি মাসেও রাজ্য সরকারি কর্মী থেকে শুরু করে ছাত্র-ছাত্রীরা কয়েকটি বিশেষ ছুটি পেয়েছেন কিছু বিশেষ কারণের জন্য।

এর মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য দুটি ছুটি হলো ১ লা সেপ্টেম্বর সমস্ত সরকারি স্কুলের একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছাত্রীরা এবং সমস্ত সরকারি কর্মচারীরা ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জানিয়ে মিছিলে অংশগ্রহণ করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী পক্ষ থেকে যে অর্ধদিবস ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিলো সেটি, এছাড়াও রয়েছে অর্থ দপ্তরের পক্ষ থেকে ঘোষিত বিশেষ সম্প্রদায়ভুক্ত সরকারি কর্মচারীদের করম পূজা উপলক্ষ্যে ৬ ই সেপ্টেম্বর যে ছুটি রয়েছে সেটি। তবে এবারে রাজ্য সরকারের মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে ছুটি ঘোষণা না করা হলেও পরীক্ষা বাতিল করা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিদ্যালয়গুলিকে। কিন্তু অনেক ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে অভিভাবকেরা পর্যন্ত এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। আর তাই আজ আমরা আলোচনা করতে চলেছি কবে বাতিল হতে চলেছে পরীক্ষা, কি কারণে বাতিল করা হবে পরীক্ষা এ সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য।

ইতিপূর্বে অর্থ দপ্তরের পক্ষ থেকে প্রকাশিত নোটিশ অনুযায়ী জানা গিয়েছিলো যে, আগামী ৬ই সেপ্টেম্বর করম পূজা উপলক্ষ্যে যে সকল বিশেষ সম্প্রদায়ভুক্ত সরকারি কর্মচারীরা এই পূজা উদযাপন করে থাকেন তাদের ছুটি থাকতে চলেছে। যদিও তার অনেক আগেই মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পক্ষ থেকে সমস্ত বিদ্যালয়গুলিকে ২৯ শে আগস্ট থেকে ৬ ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের সেকেন্ড সামেটিভ শেষ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে এবারে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে একটি নতুন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিদ্যালয়গুলিকে জানানো হয়েছে, যেসকল বিদ্যালয়গুলিতে ৬ সেপ্টেম্বর পরীক্ষা রয়েছে তারা যেন তা বাতিল করেন। অন্যভাবে বলতে গেলে ৬ই সেপ্টেম্বর করম পূজা উপলক্ষ্যে সমস্ত পরীক্ষা বাতিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে।

ওয়েসিস স্কলারশিপে আবেদন করতে গেলে এবার থেকে মানতে হবে এই দশটি নিয়ম

এর সাথে আরও বলা হয়েছে যদি কোনো বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই ৬ই সেপ্টেম্বর পরীক্ষার রুটিন ঠিক করা হয়ে গিয়ে থাকে, তবে তারা যেন অন্য কোনো দিনে সেই পরীক্ষাটি নিয়ে নেন। আর ৬ ই সেপ্টেম্বরে যে পরীক্ষাটি বাতিল হতে চলেছে সেটি পুনরায় গ্রহণের প্রক্রিয়া ২৯ শে আগস্ট থেকে ৮ ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সমস্ত বিদ্যালয়গুলিকে। এক্ষেত্রে দেখতে গেলে ৪ ঠা সেপ্টেম্বর রবিবার হওয়ার দরুণ ছাত্র-ছাত্রীদের সাপ্তাহিক ছুটি থাকতে চলেছে, ৫ ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের কারণে সমস্ত বিদ্যালয়গুলিতে পঠনপাঠন বন্ধ থাকতে চলেছে, অন্যদিকে ৬ ই সেপ্টেম্বর করম পূজা উপলক্ষ্যে পরীক্ষা বাতিল হতে চলেছে। অর্থাৎ একটানা তিন দিন ছাত্রছাত্রীদের পঠনপাঠন বন্ধ থাকতে চলেছে। সরকারি ছুটি না থাকলেও এই বিশেষ দিনগুলির কারণে যে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে তার জন্য রীতিমতো খুশি ছাত্রমহল।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে