Swami-Vivekananda-Scholarship-can-not-be-applied-even-if-you-have-the-eligibility-New-notification

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তিক অঞ্চলের পিছিয়ে পড়া এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চশিক্ষা লাভের ক্ষেত্রে সহায়তা করার জন্য বিভিন্ন প্রকার স্কলারশিপের আওতায় অনুদান প্রদান করা হয়ে থাকে। এই স্কলারশিপগুলির মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য এবং জনপ্রিয় স্কলারশিপ হলো স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ। ইতিপূর্বেই মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য এই স্কলারশিপের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। তবে এখনও পর্যন্ত স্নাতক কিংবা স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র-ছাত্রীরা কবে থেকে এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন তা জানা যায়নি।

এছাড়াও স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ (Swami Vivekananda Scholarship) এর ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, এক নতুন নিয়মের ব্যাপারে। এই নিয়মের ফলে যোগ্যতা থাকলেও বিভিন্ন ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। তবে অনেক ছাত্র-ছাত্রী এখনও পর্যন্ত এই সকল বিষয়গুলি সম্পর্কে জানেন না। তাই আজ আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার খাতিরে এই পোস্টে কবে থেকে সকল স্তরের ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবেন, স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর নতুন নিয়মটি কি, তা সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি।

• চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ সংক্রান্ত এই নতুন নিয়মটি কি:-
স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের এই নতুন নিয়ম অনুসারে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও কিছু ছাত্র-ছাত্রী এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য অনুসারে, যেসকল ছাত্র-ছাত্রী বিগত বছরে এই স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্য হওয়া সত্ত্বেও কোনো কারণবশত আবেদন করেননি তারা বর্তমান বছরে এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আর আবেদন করতে পারবেন না। অর্থাৎ ড্রপ আউট ছাত্র-ছাত্রীদের যোগ্যতা থাকলেও তারা এই স্কলারশিপের অধীনে অনুদান পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন না। স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আরও জানানো হয়েছে, যেসকল ছাত্র-ছাত্রীরা ২০২২ সালে মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, স্নাতক কিংবা স্নাতকোত্তরে উত্তীর্ণ হয়েছেন তারাই কেবলমাত্র এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবেন।

সেপ্টেম্বর মাসে মোট ১০ টি প্রকল্পের টাকা পেতে চলেছেন রাজ্যবাসী, কোন কোন প্রকল্প জেনে নিন

যদিও বিগত বছরগুলিতে এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে সদ্য উত্তীর্ণ হওয়া ছাত্র-ছাত্রীদের পাশাপাশি ড্রপ আউট ছাত্র-ছাত্রীদেরও সুযোগ দেওয়া হতো, তবে সেক্ষেত্রে ড্রপ আউট ছাত্রছাত্রীদের এই স্কলারশিপে আবেদন না করতে পারার সঠিক কারণ প্রদর্শন করতে হতো। কিন্তু এ বছরে এখনও পর্যন্ত প্রকাশিত নির্দেশিকা অনুসারে ড্রপ আউট ছাত্র-ছাত্রীরা কোনোভাবেই আবেদনের যোগ্য নন। যেহেতু এখনও পর্যন্ত স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের এই স্কলারশিপের আবেদন করার প্রক্রিয়া সংক্রান্ত কোনো নির্দেশিকা আসেনি, তাই ওয়াকিবহাল মহলের মতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরের আবেদন সংক্রান্ত নির্দেশিকার সাথে ড্রপ আউট ছাত্রছাত্রীদের আবেদন করার সংক্রান্ত নির্দেশিকা আসতে পারে। তবে এবিষয়ে এখনও পর্যন্ত স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের কর্তৃপক্ষের তরফে কোনোরূপ স্পষ্ট নির্দেশিকা পাওয়া যায়নি।

• কবে থেকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন:-
একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর ফ্রেশ এবং রিনিউয়াল অ্যাপ্লিকেশন শুরু হওয়ার পর থেকেই অন্যান্য স্তরে পাঠারত ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে কবে থেকে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে তা নিয়ে জল্পনা বাড়ছে। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুসারে মনে করা হচ্ছে, এই সেপ্টেম্বর মাস থেকেই স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের এই স্কলারশিপের অনুদানের জন্য আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। যদিও এবিষয়ে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে কোনোরূপ তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

এইরকম আরও স্কলারশিপ সংক্রান্ত নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের পেজটি ফলো করুন এবং নীচের ডানদিকের আইকনে ক্লিক করে আজই যুক্ত হোন আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে